জাতীয় ঢাকা প্রধান খবর রাজনীতি

১২ জুনের মধ্যে ব্যানার ও ফেস্টুন না তুললে সাংগঠনিক ব্যবস্থা

indexনিজস্ব প্রতিবেদ হটনিউজ২৪বিডি।কম : আগামী ১২ জুনের মধ্যে ব্যানার, ফেস্টুন, পোস্টার তুলে ফেলা না হলে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন ছাত্রলীগের সভাপতি এইচ এম বদিউজ্জামান সোহাগ।

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢাকা উত্তর-দক্ষিণ নির্বাচন কাউন্সিল পরবর্তী ছাত্রলীগ আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ ঘোষণা দেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বদিউজ্জামান সোহাগ বলেন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ ও ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণ ছাত্রলীগের সম্মেলন উপলক্ষ্যে রাজধানীর বিভিন্ন অলি-গলিতে লাগানো ব্যানার, ফেস্টুন ও পোস্টার আগামী ১২ জুনের মধ্যে তুলে ফেলা না হলে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে। অনেকে নিজেকে স্বপ্ন সারথি বানানোর জন্য ব্যানার, ফেস্টুন ও পোস্টার লাগিয়েছেন। এতে রাজধানীর পরিবেশের বিপর্যয় ঘটবে। তবে সংগঠন বা কোনো ইউনিটের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা জানানো যাবে। সেক্ষেত্রে ব্যানার, ফেস্টুন ও পোস্টারে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সজীব ওয়াজেদ জয়ের ছবি ছাড়া অন্য কোনো ছবি ব্যবহার করা যাবে না।

তিনি বলেন, আমরা ঢাকার উত্তর-দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এলাকা ছাড়াও ছাত্রলীগের ১০১টি জেলা ইউনিট, আট শতাধিক উপজেলা ও হাজার হাজার ইউনিয়ন এবং ওয়ার্ড শাখাকে নির্দেশ দিচ্ছি অবৈধভাবে দেশের কোথাও কোনো বিলবোর্ড দখল করা যাবে না। যদি কোনো নেতা-কর্মী বা সমর্থক বিলবোর্ড ব্যবহার করেন তাহলে যথাযথ কতৃপক্ষের অনুমতি নিতে হবে। এর ব্যত্তয় ঘটলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।
এসময় তিনি গত ৪ জুন ২০১৫-১৬ অর্থ বছরের ২ লাখ ৯৫ হাজার ১০০ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিতকে ধন্যবাদ জানান।

এ সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক তরিকুল ইসলাম, দপ্তর সম্পাদক শেখ রাসেল, ঢাবি সভাপতি মেহেদী হাসান, ঢাকা দক্ষিণের সহ-সভাপতি মহসিন আহমেদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, সাংগঠনিক সম্পাদক ইমাম হাসান প্রমুখ।