অপরাধ কুমিল্লা প্রধান খবর হটনিউজ স্পেশাল

নারী পুলিশের প্রেমের ফাঁদ

Lokkhipur-1428217941ডেস্ক রিপোর্ট : পুলিশের এক নারী সদস্যের প্রেমের ফাঁদে পা দিয়ে গ্রেফতার হয়েছেন সুমন (৩০) নামের এক ব্যক্তি।
কুমিল্লার বিশ্বরোড থেকে গ্রেফতারের পর শনিবার রাতে তাকে লক্ষ্মীপুরের কমলনগর থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।
সুমন কুমিল্লা জেলার কচুয়ার পাতুরিয়া গ্রামের বাচ্চু মিয়ার ছেলে।
কমলনগর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) ইকবাল হোসেন জানান, সুমন যৌতুকের টাকা না পেয়ে শ্বশুরবাড়িতে স্ত্রী রাশেদা বেগমকে (২৪) রাতে গলা কেটে হত্যা করে পালিয়ে যায়। অনেক চেষ্টা করেও যখন তাকে গ্রেফতার করা যাচ্ছিল না, তখন তাকে ধরতে পুলিশ সদস্য আনিকা চক্রবর্তীকে দিয়ে প্রেমের ফাঁদ পাতানো হয়।
তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গভীর হয়ে উঠলে সুমন আনিকার সঙ্গে দেখা করতে চায়। পূর্বনির্ধারিত সময় অনুযায়ী সুমন আনিকার সঙ্গে দেখা করতে কুমিল্লার বিশ্বরোড এলাকায় আসে। আর সেখানেই পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। এ সময় তার সঙ্গে থাকা এক আত্মীয়কেও আটক করা হয়।
কমলনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কবির আহাম্মদ বলেন, ‘আসামি সুমনকে রোববার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে।’
উল্লেখ্য, গত ৯ মার্চ সোমবার গভীর রাতে লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলার চর কাদিরা গ্রামের বাসিন্দা মৃত তাজল হকের মেয়ে রাশেদাকে (২৪) যৌতুকের জন্য স্বামী সুমন গলা কেটে হত্যা করে পালিয়ে যায়।