জাতীয় রংপুর লাইফ স্টাইল শিক্ষাঙ্গন

বিতর্ক প্রতিযোগিতায় রংপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ চ্যাম্পিয়ন

unnamed রংপুর ব্যুরো: জাতীয় স্কুল বিজ্ঞান বিতর্ক প্রতিযোগিতায় রংপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ দল চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। তারা এখন  বিভাগীয়  পর্যায়ে অংশ গ্রহণের সুযোগ পেল। আর  রানার্স আপ হয়েছে রংপুর জিলা স্কুল। শুক্রবার রংপুর শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে বিএফএফ-সমকাল বিজ্ঞান বিতর্ক প্রতিযোগিতায় তারা এ গৌরব অর্জন করে। সকাল থেকেই বিতার্কিকদের নিয়ে প্রতিষ্ঠান প্রতিনিধিরা উপস্থিত হতে থাকেন রংপুর নগরীর প্রাণকেন্দ্র টাউন হল চত্বর শিল্পকলা একাডেমি প্রাঙ্গনে। সকাল ৯ টায় খুলে দেওয়া হয় শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তন। এরপর একেএকে কানায় কানায় ভরে যায় মিলনায়তনটি। বিতার্কিক ছাড়াও তাদের অভিভাবক এবং নগরীর গণমান্য ব্যক্তিরাও উপস্থিত হন সেখানে।
সকাল সাড়ে ৯ টায় রংপুর শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে বিএফএফ-সমকাল জাতীয় স্কুল বিজ্ঞান বিতর্ক প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন রংপুর মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক  ডা. জাকির হোসেন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন শিল্পকলা একাডেমির সাধারন সম্পাদক তৌহিদুর রহমান টুটুল, ফার্টিলাইজার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারন সম্পাদক মোতাহার হোসেন মন্ডল ।
এর পরপরই শুরু হয় তর্কে বিতকের্, বিজ্ঞানের সাথে জেলার সেরা ৮টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দল নিয়ে বিতর্ক প্রতিযোগিতা। প্রথম রাউন্ড শেষে রংপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ, রংপুর জিলা স্কুল, রংপুর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এবং শিশু নিকেতন উচ্চ বিদ্যালয় দ্বিতীয় রাউন্ডে প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহণের সুযোগ পায়। দ্বিতীয় রাউন্ডের বিতর্ক প্রতিযোগিতায় চারটি দলের মধ্যে ফাইনাল রাউন্ডে যাওয়ার সুযোগ পায় ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ এবং রংপুর জিলা স্কুল। এরপর ৩০মিনিট বিরতির পর শুরু হয় ফাইনাল রাউন্ড। এ রাউন্ডে প্রতিযোগিদল একে অপরকে নানান যুক্তি দিয়ে নিজেদের যোগ্যতা প্রমাণের চেষ্টা চালায় এবং চ্যাম্পিয়ন হওয়ার আপ্রাণ চেষ্টা করে। এসময় বিতার্কিকদের নানা যুক্তি তর্কে মিলনায়তনে পক্ষ আর বিপক্ষ সমর্থকরা তালি দিয়ে অনুষ্ঠানস্থল মাতিয়ে তোলে।
বির্তক শেষে বিচারকদের ফলাফলের ভিত্তিতে বির্তক প্রতিযোগিতার প্রধান অতিথি রংপুর জেলা পরিষদ প্রশাসক মমতাজ উদ্দিন আহমেদ বিজয়ী দল হিসেবে ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজের নাম ঘোষণা করেন। এসময় বিতার্কিকরা খুশিতে একে অপরকে জড়িয়ে ধরে। এ খুশিতে তাদের অভিভাবকরাও সামিল হন। চ্যাম্পিয়ন এ দলের দলনেতা ছিল রাকিব হাসান মুবিন, আর বিতার্কিক ছিল মায়িশা আফিয়া যারিন ও উরফাত মুফীদ।
শ্রেষ্ঠ বক্তা হিসেবে নির্বাচিত হয় রংপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজের রাকিব হাসান মুবিন। রানার্স আপ রংপুর জিলা স্কুলের বিতার্কিকরা ছিল মেফতাহুল ইসলাম, মুজাহিদ-বিন-সুলতান ও দলনেতা তুরাব হক পায়েল। পরে চ্যাম্পিয়ান ও রানার্স আপ দলের বিতার্কিকদের হাতে ক্রেস্ট তুলে দেন রংপুর জেলা পরিষদ প্রশাসক মমতাজ উদ্দিন আহমেদ, মহানগর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সদরুল আলম দুলু,  শিল্পকলা একাডেমির সাধারন সম্পাদক তৌহিদুর রহমান টুটুল, সমকাল রংপুর অফিস প্রধান ইকবাল হোসেন, জেলা  সুহৃদ সমাবেশের সভাপতি অনুষ্ঠানের মডারেটর প্রভাষক আজহারুল ইসলাম দুলাল।
বিতর্ক প্রতিযোগিতায় বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন রংপুর বেতারের উপ-আঞ্চলিক পরিচালক আবদুর রহিম, সরকারি বেগম রোকেয়া কলেজের সহকারি অধ্যাপক শফিকুল ইসলাম, চ্যানেল আই স্টাফ রিপোর্র্টার এক সময়ের তুখোড় বির্তাকিক মেরিনা লাভলী ও সাতদরগা কলেজের প্রভাষক হাসেম আলী।
এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলন রংপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি প্রধান শিক্ষক সিদ্দিকুর রহমান,  চন্ডিপুর মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শামসুল আলম, আফান উল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক মোনালিসা রহমান, সমকাল মিঠাপুকুর সংবাদদাতা হাবিবুর রহমান সোনা,  সুহৃদ সমাবেশের মাহবুবুর রহমান, জামিল হোসেন, এহসানুল হক সুমন, রাকিব হাছান লিখন প্রমুখ। সময় নিয়ন্ত্রক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় লোক প্রশাসন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী রায়হান সরকার ও তরিকুল ইসলাম।