জাতীয় দিনাজপুর রংপুর সারাদেশ

পত্রিকায় প্রকাশ করলেই তাদের বাবাকে খুঁজে পাওয়া যাবে

unnamed বেলাল উদ্দিন, দিনাজপুর: দিনাজপুরের পার্বতীপুরে হতভাগ্য সন্তানদের আর্তিতে নামাপাড়া গ্রামের বাতাস ভারী হয়ে আসছে। মানসিক ভারসাম্যহীন পিতা মোহাম্মাদকে গত ৪ মার্চ থেকে কোথাও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। হারানো পিতার এক মাত্র অস্পষ্ট ছবি বুকে নিয়ে দ্বারে দ্বারে সন্তানরা কেঁদে কেঁদে বুক ভাসিয়ে বাবাকে খুঁজে বেড়াচ্ছে। কেউ এগিয়ে আসছেনা, কেউ খোঁজ দিচ্ছে না তাদের বাবা জীবিত আছে? না কি চিরতরে কোথাও হারিয়ে গেছে?
ইতোমধ্যে সমাজের অতি উৎসাহী এবং উৎসুচক ব্যক্তিরা তাদের বাড়ীতে য্যেচে ভীড় জমিয়ে উদ্ভট উপদেশ দেওয়াতে সন্তানরা আরো মরিয়া হয়ে পথে পথে ঘুরছে বেড়াচ্ছে দুমড়ানো মুছড়ানো বাবার এক মাত্র ছবি নিয়ে। একপর্যায় ক’জন স্বহৃদয়বানরা তাদেরকে প্রতিনিধির অফিসে নিয়ে এলেই কান্নার আর্তিতে মুছড়ে যায়। তাদের বিশ্বাস প্রতিনিধি পত্রিকায় প্রকাশ করলেই তাদের বাবাকে খুঁজে পাওয়া যাবে। বাবা যদি নাও থাকে তবু তার দেহটার খোঁজ পাবে। কিছু জানতে চাইলে চোখ মুছে উঠে দাড়িয়ে এক নিশ্বাসে বলতে থাকে বাবার (মোহাম্মাদ) বয়স ৪৮ বছর, দেহের গঠন ভাল, মাথার চুল সাদা, মুখে পাঁকা চাপদাড়ি, পড়নে শার্ট ও লুঙ্গী, গায়ের রং শ্যামলা। মানসিক প্রতিবন্ধি হলেও কথা বলে এবং চলার পথে নিজে নিজেই কথা বলে। কথা শেষ না হতেই ছবিটি এগিয়ে দিলে অস্পষ্ট দুমড়ানো মুছড়ানো ছবিটি। এতদিনে ধরে তাদের কথাগুলো মুখস্ত হয়ে গেছে। আরো কিছু জানতে চাইলে বলে ওঠে আগে বাবাকে এনে দাও তারপর বলবো। তারপর ছবিকে নতুন সাজে তৈরী করা হলো কম্পিউটারে।

জানা যায় হারানো মোহাম্মদের পিতা মৃত. আজিমুদ্দিন, গ্রাম-নামাপাড়া, উপজেলা-পার্বতীপুর, জেলা-দিনাজপুর, নামে পার্বতীপুর মডেল থানায় জিডি করা হয়েছে। যার জিডি নং-৭২৪, তারিখ ১৬-০৩-১৫।
মানুষ মানুষের জন্য……, সেই প্রত্যাশায় কোন স্বহৃদয়বান ব্যক্তি ছবির মানসিক ভারসাম্যহীন পিতা মোহাম্মাদের কোন সন্ধান পেলে থানায় অথবা মোবাইল নম্বরে ০১৮২৪২০৬৪১২, ০১৮৬৬৩০২৯০৮ অথবা প্রতিনিধির নম্বরে ০১৭১৬৫১৯০২৪ দয়া করে জানতে আমরা সকলেই উৎগ্রীব।