অর্থ ও বাণিজ্য

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে সূচক বাড়লেও লেনদেনের পরিমাণ কমেছে

ঢাকা :: দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সপ্তাহের পঞ্চম ও শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার (২৭ নভেম্বর) সূচক বাড়লেও লেনদেনের পরিমাণ কমেছে। এদিন ডিএসইতে ২৬৩ কোটি ৭৯ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়। যা গত চার মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন লেনদেন। এর আগে গত ২০ জুলাই ডিএসইতে সর্বনিম্ন ২৬৩ কোটি ৬৯ টাকা লেনদেন হয়। অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) সূচক বাড়লেও লেনদেনের পরিমাণ কমেছে।

ডিএসইর ওয়েবসাইট সূত্রে জানা যায়, এদিন ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স বা ডিএসইএক্স সূচক ১৫ পয়েন্ট বেড়ে ৪ হাজার ৭৭২ পয়েন্টে অবস্থান করে। এছাড়া ডিএস-৩০ সূচক ৮ পয়েন্ট বেড়ে এক হাজার ৭৬০ পয়েন্টে এবং ডিএসইএস সূচক ১ পয়েন্ট কমে এক হাজার ১০৬ পয়েন্টে স্থির হয়।

লেনদেন হওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে দাম বেড়েছে ১৬২টির, কমেছে ১০৫টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৫টির দাম।

টাকার অংকে লেনদেনের শীর্ষ কোম্পানির মধ্যে ওঠানামা করে- বেক্সিমকো, সামিট অ্যালায়েন্স পোর্ট, বেক্সিমকো ফার্মা, ওয়েস্টার্ন মেরিন, কেয়া কসমেটিকস, খান ব্রাদার্স, আরএন স্পিনিং, লাফার্জ সুরমা, সাইফ পাওয়ারটেক ও গ্রামীণফোন।

লেনদেন হয়েছে মোট ২৬৩ কোটি ৭৯ লাখ ৭১ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিট।

আগের কার্যদিবস বুধবার লেনদেন হয়েছিল মোট ৩১২ কোটি ৭০ লাখ টাকা।

এর আগে বেলা ১১টায় ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স বা ডিএসইএক্স সূচক ৯ পয়েন্ট বেড়ে ৪ হাজার ৭৬৬ পয়েন্টে, ডিএস-৩০ সূচক ১ পয়েন্ট বেড়ে এক হাজার ৭৫৪ পয়েন্টে এবং ডিএসইএস সূচক ২ পয়েন্ট বেড়ে এক হাজার ১১১ পয়েন্ট হয়।

বেলা ১১টা ৩৫ মিনিটে ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স বা ডিএসইএক্স সূচক ৩৫ পয়েন্ট বেড়ে ৪ হাজার ৭৯১ পয়েন্টে, ডিএস-৩০ সূচক ১৩ পয়েন্ট বেড়ে এক হাজার ৭৬৫ পয়েন্টে এবং ডিএসইএস সূচক ৮ পয়েন্ট বেড়ে এক হাজার ১১৬ পয়েন্ট হয়।

দুপুর ১টা ৩৫ মিনিটে ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স বা ডিএসইএক্স সূচক ২৬ পয়েন্ট বেড়ে ৪ হাজার ৭৮২ পয়েন্টে, ডিএস-৩০ সূচক ১৩ পয়েন্ট বেড়ে এক হাজার ৭৬৫ পয়েন্টে এবং ডিএসইএস সূচক ২ পয়েন্ট বেড়ে এক হাজার ১১০ পয়েন্টে স্থির হয়।

অন্যদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) ওয়েবসাইট সূত্রে জানা যায়, এদিন সিএসইর সিএসসিএক্স সূচক ১৩ পয়েন্ট বেড়ে ৮ হাজার ৯৬২ পয়েন্টে অবস্থান করে। এছাড়া সিএসই-৩০ সূচক ১৩ পয়েন্ট বেড়ে ১২ হাজার ৯২ পয়েন্টে এবং সিএএসপিআই সূচক ৯ পয়েন্ট বেড়ে ১৪ হাজার ৬৬৭ পয়েন্টে দাঁড়ায়।

স্টক এক্সচেঞ্জটিতে লেনদেন হওয়া ২০৯টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ৯৮টির, কমেছে ৮৪টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৭টির দাম।

লেনদেন হয় মোট ২২ কোটি ৭৭ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিট।

আগের কার্যদিবস বুধবার লেনদেন হয়েছিল মোট ২৪ কোটি ৯০ লাখ টাকা।