জাতীয় ঢাকা নেত্রকোণা লাইফ স্টাইল

দুর্গাপুর বন্যা পরিস্থিতি অবনতি,জনদূর্ভোগ চরমে

 বিজন কৃষ্ণ রায়।দুর্গাপুর(নেত্রকোনা): নেত্রকোণার দুর্গাপুরে ৭টি ইউনিয়ন ও পৌরসভা সহ রবিবার দুপুরে ভারতের মেঘালয় রাজ্য থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলে ব্যাপক ক্ষতি সাধিত হয়। দুর্গাপুর থানা সহ পৌর শহরের  মোক্তারপাড়া , মাছবাজার ,চরমোক্তারপাড়া, মুজিবনগর সহ অন্যান্য এলাকায় বন্যার পানি ঢুকে পড়ে। তাছাড়া সোমবার পর্যন্ত ৭টি ইউনিয়নে ১৬০ টি গ্রাম প্লাবিত হয়। চন্ডিগড় ইউনিয়নের কেরনখলা বাজারের বিমল কৃষ্ণ রায়,আবু জাফর,খোকন মিয়ার ৪টি চৌচালা ঘর বন্যার পানিতে ভেংগে পরে,চন্ডিগড় কেরনখলা রাস্তা প্রায় আধা কিঃমিঃ ভেংগে বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়। দুর্গাপুর ইউনিয়নের মেনকী চন্দ্রকোনা,মাসকান্দা,জাঙ্গালিয়াকান্দা, শ্যামনগর রাস্তা ভেংগে যায় এবং প্রায় সবক‘টি ইউনিয়নের পুকুরগুলোর মাছ বন্যার পানিতে ভেসে যায়। বিরিশিরি ইউনিয়নের দাখিনাইল গ্রামের ঐতিহ্যবাহী কমলরানীর দিঘীর পাড় ভেংগে বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়। উপজেলার পৌরসভা সহ সবক‘টি ইউনিয়নে প্রায় ২ হাজার হেক্টর রোপা আমন ধান এখনও পানির নীচে তলিয়ে আছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম জানান ৭টি ইউনিয়নে ১ টন করে জি,আর ও পৌরসভায় ২ টন জি,আর বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। বানভাসী মানুষের চাহিদার তুলনায় ত্রান সামগ্রী অত্যন্ত অপ্রতুল। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পানি বিপদ সীমার ৬০ সেঃমিঃ উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।