জাতীয় ঢাকা নারয়ণগঞ্জ প্রধান খবর রাজনীতি

নারায়ণগঞ্জে রফিউর রাব্বির ওপর হামলা

  নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি : নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের উপনির্বাচনে সন্ত্রাসীদের ভোট না দেওয়ার আহ্বান সম্বলিত লিফলেট বিতরণের সময় সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের আহ্বায়ক রফিউর রাব্বির ওপর হামলা চালিয়েছে জাতীয় পার্টির ক্যাডাররা।

শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় নগরীর কালীরবাজার এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। হামলায় রফিউর রাব্বিসহ সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের সাত কর্মী আহত হন। পুলিশের উপস্থিতিতেই হামলার এ ঘটনা ঘটে। তবে পুলিশ ও জাতীয় পার্টির নেতারা ঘটনার কথা অস্বীকার করেছেন।

হামলার ঘটনা সম্পর্কে ত্বকী মঞ্চের আহ্বায়ক রফিউর রাব্বি বলেন, এ ঘটনার মধ্য দিয়ে প্রমাণিত হয়েছে ওদের হাতে (ওসমান পরিবার) কেউ নিরাপদ নয়।

লিফলেট বিতরণের সময় উপস্থিত সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি প্রদীপ ঘোষ বাবু বলেন, শুক্রবার বিকেলে তারা শহরের আমলাপাড়া, কালীরবাজার, স্বর্ণপট্টিসহ বিভিন্ন এলাকায় সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের লিফলেট বিতরণ করছিলেন। সন্ধ্যায় তারা কালীরবাজার মাজারের সামনে আসলে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই মিজান একটি লিফলেট চেয়ে নেন। তারা কালীরবাজারের ভেতরে লিফলেট বিতরণ শেষে চারারগোপ এলাকায় গেলে সেখানে তাদের পথরোধ করেন এসআই মিজান। ওই সময় জাতীয় পার্টির কিছু নেতা-কর্মীও সেখানে পুলিশের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন।

এসআই মিজান তাদের উদ্দেশে করে বলেন, আপনারা যে লিফলেট বিতরণ করছেন সেটা নির্বাচন আচরণ বিধির লঙ্ঘন। ওই সময় রফিউর রাব্বি পুলিশ সুপার ড. খন্দকার মহিদ উদ্দিনের সঙ্গে কথা বললে পুলিশ সুপার রাব্বিকে জানান, আচরণ বিধির বিষয়টি নির্বাচন কমিশন দেখবে। এটি পুলিশের দেখার কথা নয়।

এরপরেই ঘটনাস্থলে উপস্থিত জাতীয় পার্টির কিছু নেতা-কর্মী ত্বকী মঞ্চের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে পুলিশের উপস্থিতিতেই তর্কে জড়িয়ে পড়েন। ওই সময় ঘটনাস্থলে আরো ২০-৩০ জন নেতা-কর্মী নিয়ে উপস্থিত হন মহানগর জাতীয় পার্টির সদস্যসচিব আকরাম আলী শাহিন।

তার নির্দেশে পুলিশের উপস্থিতি জাতীয় পার্টির নেতা-কর্মীরা ত্বকী মঞ্চের আহ্বায়ক রফিউর রাব্বি ও তার সহকর্মীদের ওপর হামলা করে। হামলায় রফিউর রাব্বি ছাড়াও সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি প্রদীপ ঘোষ বাবু, আরিফ বুলবুল, মনির হোসেন, অমল আকাশ, জাহাঙ্গীর আলম, আনোয়ার হোসেনসহ সাত জন আহত হন। আহতরা স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়েছেন।

ঘটনার ব্যাপারে জানতে চাইলে মহানগর জাতীয় পার্টির সদস্যসচিব আকরাম আলী শাহিন বলেন, ত্বকী মঞ্চের নেতা-কর্মীরা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকেই একটি বিতর্কিত লিফলেট বিতরণ করছে। লিফলেটের ভাষা যাই হোক তারা লিফলেট বিতরণের সময় বলছেন, খুনি ওসমান পরিবারকে ভোট দেবেন না।

এ ব্যাপারে বৃহস্পতিবার শাহিন সদর মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন বলেও জানান। শুক্রবারও একইভাবে লিফলেট বিতরণ করার খবর পেয়ে তিনি সদর মডেল থানাকে অবহিত করে ব্যবস্থা নেবার অনুরোধ জানান।

জানতে চাইলে সদর মডেল থানার সেকেণ্ড অফিসার এসআই মিজান বলেন, লিফলেট বিতরণ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে তর্ক হয়েছে। কিন্তু কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।

সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের আহ্বায়ক রফিউর রাব্বি বলেন, এ ব্যাপারে এখনো থানায় কোনো মামলা করেননি। যেহেতু পুলিশের উপস্থিতিতেই ঘটনা তাই মামলা করে কতটা সুবিধা পাওয়া যাবে তা নিয়ে শঙ্কা রয়েছে। তিনি বলেন, আগামী ২৬ জুনের নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জবাসী এর জবাব দেবে।