অর্থ ও বাণিজ্য চট্টগ্রাম চাঁদপুর জাতীয় প্রধান খবর

চাঁদপুরে ইলিশের বাজারে আগুন জ্বললেও জাটকা শিকার থেমে নেই

শাহ মোহাম্মদ মাকসুদুল আলম, চাঁদপুর,১০এপ্রিল: পহেলা বৈশাখকে সামনে রেখে ইলিশের রাজধানী হিসেবে খ্যাত চাঁদপুরের ইলিশের বাজারে আগুন জ্বলছে।  আকার ভেদে কেজি প্রতি ইলিশ দুই থেকে চার হাজার করে টাকায় বিক্রি হচ্ছে। মার্চ ও এপ্রিল এই দুই মাস চাঁদপুরসহ ইলিশের অভয়াশ্রমে সব ধরনের জাল ফেলা নিষিদ্ধ করায় ইলিশের সংকট সৃষ্টি হয়েছে। কোল্ড ষ্টোরেজে রাখা আগের বছরের ইলিশ এবং প্রশাসনের নজর এড়িয়ে চুপিসারে শিকার করা ইলিশ এখন বাজারে বিক্রি হচ্ছে অনেক বেশি দামে।  চাঁদপুরের বাজারে তেমন একটা ইলিশ মাছ নেই বললেই চলে। ২/৪টি করে মাঝারি আকারের যেসব ইলিশ মাছ পাওয়া যায় তার দাম আকাশ ছোঁয়া। সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার একেবারে বাইরে বললেই চলে। বর্তমান বাজারে কেজি পরিমাণ ইলিশ প্রতি মণ ৮০ হাজার টাকা। আর এক কেজির উপরের ইলিশের মণ প্রতি দাম ১ লাখ ২০ হাজার করে টাকা।  খুচরা বাজারে প্রতি কেজি ইলিশ মাছ ২ থেকে ৩ হাজার টাকা। ৭ থেকে ৮শ’ গ্রাম ওজনের ইলিশ প্রতিমন ৫৪ থেকে ৫৫ হাজার টাকা। খুচরা বাজারে প্রতি কেজি ১ হাজার ৩ থেকে ১ হাজার ৪শ টাকা। ৫শ’ থেকে ৬শ’ গ্রাম ওজনের প্রতিমন ইলিশের মূল্য ২৩ থেকে ২৪ হাজার টাকা। খুচরা বাজারে প্রতি কেজি ইলিশ ৬শ’ থেকে ৭শ’ টাকা দরে এখনো বিক্রি করা হচ্ছে।
চাঁদপুরে ইলিশের আকাল চললেও জাটকা শিকার কিন্তু বন্ধ নেই। হাইমচর থেকে শুরু করে চাঁদপুর হয়ে ষাটনল পর্যন্ত দীর্ঘ নদীতে শত শত জেলে নৌকার মাধ্যমে প্রকাশ্যে নদীতে জাটকা শিকার চলছে। এসব জাটকা কলসে ভরে বাড়ি বাড়ি নিয়ে বিক্রি করছে মহিলারা। মাঝে মধ্যে ক্যামেরা সেশনের জন্য জাটকার দু’ একটি চালান আটক করা হলেও আটককৃত জাটকাও হাওয়া হয়ে যায় বলে অভিযোগ রয়েছে। নদী তীরবর্তী এলাকায় অবস্থিত পুলিশ ফাঁড়ি, কোষ্টগার্ড এবং মৎস্য বিভাগের অসাধু লোকজনের মাধ্যমে এই অপকর্মগুলো হচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে। আর রাজনৈতিকভাবে প্রভাবশালী ব্যক্তিদের মদদে নদীতে চলছে জাটকা শিকার।