জাতীয়

‘সাংবাদিক জানলে এমন কাজ করতাম না’

ঢাকা, ২৯ মার্চ (হটনিউজ২৪বিডি.কম) : রাজধানীর মহানগর নাট্যমঞ্চের সামনের রাস্তা দিয়ে প্রেসক্লাবের দিকে যাচ্ছিলেন সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম। এ সময়ে তার মোটর সাইকেলটির ওপর দিয়ে বাস উঠিয়ে দেয় এক চালক। পরে তাকে যখন ধরা হল, তখন সে স্বীকার করল কাজটি অন্যায় হয়েছে। তার ভাষায় ‘সাংবাদিক জানলে এমন কাজ করতাম না।’

শনিবার বেলা তখন ১১টা। নিজ বাসা থেকে মোটরসাইকেল নিয়ে বের হন দৈনিক জনতার সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম। তিনি ওই স্থানে পৌঁছলে ট্রান্স সিলভা কোম্পানির একটি বাস (ঢাকা মেট্রো ব-১৪-০৪৬৮) তার মোটসাইকেলের পেছনে ধাক্কা দেয়। এ সময় তিনি রাস্তায় পড়ে গিয়ে পায়ে আঘাত পান। তার মোটর সাইকেলটির সামনের অংশ গুড়িয়ে যায়।

পথচারীরা তাকে উদ্ধার করে প্রেসক্লাবে ঢাকা ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের অফিসে নিয়ে আসেন। পরে শাহবাগ থানার এসআই শাহ আলম সাংবাদিকদের সহায়তায় ঐ বাসটি এবং চালককে আটক করেন। আহত সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম এখন চিকিৎসাধীন আছেন।

এ বিষয়ে এসআই শাহ আলম বলেন, প্রথমে গাড়ির চালক বিষয়টি অস্বীকার করার চেষ্টা করেন। কিন্তু মোটর সাইকেলটি টেনে হেচড়ে চাপা দেওয়ার কারণে বাসের একপাশে বড় ধরনের দাগ পড়ে যায়। এর কারন জানতে চাইলে চালক বিষয়টি স্বীকার করেন এবং পুলিশের পা ধরে মাফ চাইতে থাকেন।

এ সময়ে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের যুগ্ম মহাসচিব সাইফুল ইসলাম তালুকদার বলেন, বাসের ধাক্কায় সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম পড়ে যাওয়ার পরও বাসের ডাইভার মোটর সাইকেলটি চাপা দিয়ে পালানোর চেষ্টা করেন। পরে ড্রাইভারকে প্রেসক্লাবের ভেতরে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে সে জানায়, ‘উনি সাংবাদিক এটা আমি জানতাম না। জানলে চাপা দিতাম না।’

ড্রাইভারের কথা শুনে সাংবাদিক নেতারা জানতে চান,‘সাধারন মানুষ হলে কি চাপা দিয়ে মেরে ফেলতে।’ এর উত্তরে ড্রাইভার কিছু বলেনি। পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেছে। এ ব্যাপারে শাহবাগ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।