রাজশাহী রাজশাহী সারাদেশ

ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে যুবলীগ কর্মী খুন

রাজশাহী, ২৫ মার্চ (হটনিউজ২৪বিডি.কম) : টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের বাজি ধরাকে কেন্দ্র করে রাজশাহীতে যুবলীগ কর্মী খুন হয়েছেন। নিহতের নাম মাসুম (৩০)। তিনি গোদাগাড়ী উপজেলার নিমতলা এলাকার আওয়ামী লীগ নেতা আবু তালেবের ছেলে। এলাকাবাসীর খবরের ভিত্তিতে গোদাগাড়ী থানা পুলিশ মঙ্গলবার সকালে নিহত মাসুমের লাশ নিমতলা পদ্মা নদী সংলগ্ন পেয়ারা বাগান থেকে উদ্ধার করেছে। নিহতের স্ত্রী নিশা খাতুন জানান, সোমবার রাত ৯টার দিতে তার স্বামী বাড়ি থেকে বের হন। এরপর গভীর রাত পর্যন্ত বাড়ি না ফেরায় তার মোবাইল ফোনে কল দেওয়া হয়। কিন্তু ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। রাতে অনেক খোঁজাখুজি করেও তাকে পাওয়া যায়নি। সকালে জানতে পারেন পেয়ারা বাগানে তার লাশ পড়ে আছে। নিহতের বাবা আবু তালেব জানান, তার ছেলে টি-টোয়েন্টি খেলায় বাজি ধরতো। এলাকার যুবকদের কাছে তিনি শুনেছেন, সোমবারের একটি খেলায় মাসুম মোটা অংকের টাকা বাজিতে জয়লাভ করে।

টাকা নেওয়ার কথা বলেই তাকে বাড়ি থেকে ডেকে নেওয়া হয়েছে বলে তিনি ধারণা করছেন। এরপর তাকে দুর্বৃত্তরা খুন করেছে। এলাকাবাসী জানান, নিহত মাসুমের ৪ বছরের দুটি যমজ সন্তান আছে। তার বাবা আবু তালেব দেওপাড়া ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি। এছাড়া মাসুমও স্থানীয় যুবলীগের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলেন। এ ব্যাপারে গোদাগাড়ী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবু মোকাদ্দেম আলী বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। নিহতের শরীরের পেট, বুক, হাত ও গলাসহ শরীরের বিভিন্ন অংশে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। তিনি আরো বলেন, ক্রিকেটের বাজি ধরা না রাজনৈতিক কারণে মাসুমকে খুন করা হয়েছে তা তদন্ত করে দেখা হবে। নিহতের বাবা হত্যামামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানান তিনি। এদিক মাসুম নিহতের ঘটনায় পরিবারের সদস্যদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। মাসুম তার বাবা আবু তালেবের একমাত্র ছেলে সন্তান বলে জানা গেছে।