অর্থ ও বাণিজ্য

চার কোম্পানির লভ্যাংশ ঘোষণা

ঢাকা, ১৭ মার্চ (হটনিউজ২৪বিডি.কম) : শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত চার কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদ ২০১৩ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত হিসাব বছরের জন্য লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। কোম্পানিগুলো হলো— লিনডে বাংলাদেশ, রিপাবলিক ইন্স্যুরেন্স, সামিট অ্যালায়েন্স পোর্ট ও আইপিডিসি। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

লিনডে বাংলাদেশ: কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদ ২০১৩ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত হিসাব বছরের জন্য ১১০ শতাংশ চূড়ান্ত নগদ লভ্যাংশ সুপারিশ করেছে। এ নিয়ে বিদ্যুত্ ও জ্বালানি খাতের এ কোম্পানির পক্ষ থেকে সমাপ্ত হিসাব বছরের জন্য মোট ৩১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করা হলো। এর মধ্যে ২০০ শতাংশ অন্তর্বর্তীকালীন নগদ লভ্যাংশ রয়েছে, যা এরই মধ্যে পরিশোধ করা হয়েছে। গতকাল ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

কোম্পানির পক্ষ থেকে আরো জানানো হয়েছে, আগামী ৮ মে এর বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) আহ্বান করা হয়েছে। এজন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ২৫ মার্চ। এজিএমের স্থান এবং সময় পরে জানানো হবে। সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটির সম্পদমূল্য দাঁড়িয়েছে ২৪৫ কোটি ৮৫ লাখ টাকা ও শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ৪৮ কোটি ৮৫ টাকা।

এদিকে অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুসারে, তৃতীয় প্রান্তিকে (২০১৩ সালের জুলাই-সেপ্টেম্বর) কোম্পানির মুনাফা বেড়েছে ৯৭ শতাংশ। প্রতিবেদন অনুসারে, এ তিন মাসে এর কর-পরবর্তী নেট মুনাফা হয়েছে ১৪ কোটি ৮৯ লাখ ৫০ হাজার টাকা, যা আগের হিসাব বছরের একই সময়ে হয় ৭ কোটি ৫৬ লাখ ২০ হাজার টাকা। এ তিন মাসে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৯ টাকা ৭৯ পয়সা, যা আগের হিসাব বছরের একই সময় হয় ৪ টাকা ৯৭ পয়সা।

রিপাবলিক ইন্স্যুরেন্স: কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদ সাড়ে ১২ শতাংশ বোনাস শেয়ার সুপারিশ করেছে। সমাপ্ত হিসাব বছরে এর ইপিএস হয়েছে ২ টাকা ৭৬ পয়সা। ৩১ মার্চ এর রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে। এর এজিএম অনুষ্ঠিত হবে ১৬ এপ্রিল।

সামিট অ্যালায়েন্স পোর্ট: কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদ ১৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ সুপারিশ করেছে। লভ্যাংশের একটি অংশ রিজার্ভ থেকে দেয়া হচ্ছে। ওশেন কনটেইনারের সঙ্গে একীভূত হওয়ার পর কোম্পানির আয় কমে যাওয়ায় রিজার্ভ ব্যবহার করা হচ্ছে। ৩১ মার্চ রেকর্ড ডেট ঘোষণা করা হয়েছে। আগামী ১১ মে বসুন্ধরা কনভেশন সেন্টার-২-এ সকাল সাড়ে ১০টায় এর এজিএম আহ্বান করা হয়েছে। সমাপ্ত হিসাব বছরে এর ইপিএস হয়েছে ৮৮ ও এনএভি ২৮ টাকা ২৫ পয়সা। ২০১২ সালের জন্য কোম্পানিটি ১০ শতাংশ নগদ ও ১০ শতাংশ বোনাস শেয়ার লভ্যাংশ হিসেবে দেয়।

আইপিডিসি: কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদ ১৫ শতাংশ লভ্যাংশ সুপারিশ করেছে। এর মধ্যে ৫ শতাংশ নগদ ও ১০ শতাংশ বোনাস শেয়ার। ২৭ মার্চ রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে। আগামী ১৫ মে এর এজিএম আহ্বান করা হয়েছে। সমাপ্ত হিসাব বছরে এর ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ৩৬ ও এনএভি ১৯ টাকা ৭৯ পয়সা। – অর্থসূচক