অপরাধ ঢাকা রাজনীতি শিক্ষাঙ্গন

জবিতে ছাত্রলীগের হাতাহাতি

 ক্যাম্পাস প্রতিবেদক, জবি, ৩১ জানুয়ারি :  অনার্স প্রথম বর্ষের সাক্ষাৎকার চলাকালে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে (জবি) ছাত্রলীগের দুইগ্রুপের মধ্যে হাতাহাতি হয়েছে। এই ঘটনায় চার নেতাকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করেছে সংগঠনটি। এরমধ্যে তিনজনকে প্রক্টরের মাধ্যমে আটক করেছে কোতোয়ালি থানা পুলিশ। শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টা থেকে দুপুর আড়াই টা পর্যন্ত এ হাতাহাতি, মারামারির ঘটনা ঘটে। দুইগ্রুপের সংঘর্ষের সময়ে শিক্ষক সমিতির এক শিক্ষকও আহত হয়েছেন।  প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের পরিবেশ বিষয়ক উপসম্পাদক সাইফুল আমীন নাবিদ ভর্তিচ্ছুক এক শিক্ষার্থীর কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা আত্মসাৎ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই সময় জবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি এফএম শরিফুল ইসলাম তাকে জিঙ্গাসাবাদ করলে নাবিদ তার সঙ্গে অশোভন আচরণ করে। পরে তাকে লাঞ্চিতও করে। এই সময়ে সভাপতির সঙ্গে উপস্থিত থাকা নেতাকর্মীরা নাবিদকে মারধর করে। এরপর নাবিদের সঙ্গে থাকা সাধারণ সম্পাদক গ্রুপের কর্মীরা হাতাহাতি শুরু করে। মারামারির এক পর্যায়ে দুইগ্রুপের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়। এই সময়ে আহত হয়েছে ছয় জন।  প্রত্যক্ষদর্শীরা আরো জানায়, অনার্স প্রথম বর্ষে ভর্তিচ্ছুকদের সাক্ষাৎকার গ্রহণের সময়ে সাধারণ শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ছাত্রলীগের একাধিক নেতাকর্মীর অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ ওঠে। এই নেতাকর্মীরা ছাত্রলীগের পূর্বতন যুগ্ম আহ্বায়ক খন্দকার আরিফুজ্জামান ও সাধারণ সম্পাদক এসএম সিরাজুল ইসলামের নেতাকর্মী। সংঘর্ষের সময়ে দুই গ্রুপকেই রড, হাতুড়ি, লাঠি, স্ট্যাম্প ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়তে দেখা যায়। এই সময়ে দুইপক্ষের মাঝে সমঝোতা করতে গিয়ে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ইংরেজি বিভাগের চেয়ারম্যান ও শিক্ষক সমিতির সদস্য অধ্যাপক ড. নাসির উদ্দীনের চশমা ভেঙে ফেলে এবং তাকে লাঞ্চিত করে। আহত অবস্থায় নাবিদকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।  বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম সিরাজুল ইসলাম দাবি করে বলেন, যাদের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে তারা কেউ ছাত্রলীগের সদস্য নয়। ছাত্রলীগের কমিটি হওয়ার পরে এদের দেখা যায়নি। আজ এরা এসেছিল ভর্তি বাণিজ্য করতে। এরা সবাই শিবিরের সঙ্গে জড়িত।
কিন্তু জানা গেছে, এরা সবাই ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গ্রুপের নেতাকর্মী। বিকেলে ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে চারজনকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এরা হলো জবি শাখা ছাত্রলীগের পরিবেশ বিষয়ক উপসম্পাদক সাইফুল আমিন নাবিদ, সহ সম্পাদক তরিকুল, পরিকল্পনা ও কর্মসুচি বিষয়ক উপসম্পাদক রমিজ ও বিশ্ববিদ্যালয় শাখা গোপালগঞ্জ জেলার ছাত্রকল্যাণ সমিতির সভাপতি রুবেল।