আন্তর্জাতিক প্রধান খবর

অবিলম্বে সংলাপে বসতে জোর যুক্তরাষ্ট্রের- মেরি হার্ফ

 ডেস্ক রিপোর্ট, ঢাকা, ৭ জানুয়ারি : বিরোধী দলবিহীন ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত নির্বাচন নিয়ে হতাশা ব্যক্ত করেছে যুক্তরাষ্ট্র। এই নির্বাচনের ফলাফল বাংলাদেশের জনগণের আকাঙ্ক্ষার বিশ্বাসযোগ্য প্রতিফলন নয় বলে দাবি করেছে দেশটি।

সোমবার মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের এক বিবৃতিতে এসব কথা বলা হয়।

দফতরের উপ-মুখপাত্র মেরি হার্ফ স্বাক্ষরিত ওই বিবৃতিতে বলা হয়, এই দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অর্ধেকেরও বেশি আসনে প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। বাকিগুলোর মধ্যে অধিকাংশ আসনেই নামে মাত্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়েছে। ফলে এই নির্বাচনের ফলাফল বাংলাদেশের জনগণের আকাঙ্ক্ষার বিশ্বাসযোগ্য প্রতিফলন নয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, নতুন সরকারের রূপ কী হবে, সেটা ভবিষ্যতে জানা যাবে, কিন্তু বাংলাদেশের মানুষের প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তার অঙ্গীকার অটুট থাকবে। এই সুবাদে আমরা বাংলাদেশের সরকার ও বিরোধী দলকে অবিলম্বে সংলাপে বসার জন্য উৎসাহিত করছি। যার মাধ্যমে তারা যত দ্রুত সম্ভব একটি নতুন নির্বাচন অনুষ্ঠানের পথ খুঁজে বের করবে। যেটি হবে অবাধ, নিরপেক্ষ, শান্তিপূর্ণ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন। যা বাংলাদেশের মানুষের আকাঙ্ক্ষার প্রতিফলন ঘটাবে।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, বর্তমানে বাংলাদেশে বিরাজমান রাজনৈতিক অচলাবস্থায় সব পক্ষ থেকে যে সহিংস কার্যকলাপ ঘটছে, যুক্তরাষ্ট্র তীব্র ভাষায় তার নিন্দা জানাচ্ছে। রাজনৈতিক প্রক্রিয়ায় সহিংসতা গ্রহণযোগ্য নয়। সহিংসতা কোনোভাবেই গণতান্ত্রিক চর্চার অংশ নয় এবং তা অবিলম্বে বন্ধ করতে হবে।