সকল মেনু

‘আওয়ামী লীগ বন্ধুহীন নয়, কে নিষেধাজ্ঞা দিলো তা ভাবেন না শেখ হাসিনা’

দেশে ও বিদেশে আওয়ামী লীগ বন্ধুহীন নয়। ফলে কে কী নিষেধাজ্ঞা দিলো তা নিয়ে ভাবেন না বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা- এমন মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, নির্বাচন প্রতিরোধ করতে অস্ত্র মজুত করছে বিএনপি। ২০১৩-১৪ সালের পুনরাবৃত্তি করতে চায়। কিন্তু আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা এবার ইস্পাত কঠিন ঐক্য নিয়ে সারা বাংলায় তা প্রতিরোধ করবে।

মঙ্গলবার (২২ আগস্ট) তেজগাঁওয়ে ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগ অফিসে দলীয় নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এ দেশ পাকিস্তানের বন্ধুদের জন্য নয়, এ দেশ সাম্প্রদায়িকদের জন্য নয়, এ দেশ অর্থ পাচারকারীদের নয়। মুচলেকা দিয়ে পালিয়ে যাওয়া নেতা তারেককে বাংলাদেশের জনগণ নেতা বানাবে না।’

তিনি বলেন, ‘আজ বিএনপির মির্জা ফখরুল বলেন- আমরা নাকি তাদের ২২ নেতাকর্মীকে হত্যা করেছি। ফখরুল সাহেব, আপনাদের ২২ জন আর আমাদের ২২ হাজার নেতাকর্মী হত্যা করেছেন।’

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘আগামী ২ সেপ্টেম্বর ঢাকা জনসমুদ্রে রূপ নেবে। মহাসমুদ্রের সে স্রোত দেখার অপেক্ষায় আছি। আওয়ামী লীগ আদর্শ পাতাকাবাহী সংগঠন। আমরা একাত্তরের সন্তান, পঁচাত্তরের সন্তান, তিন নভেম্বরের সন্তান, একুশ আগস্টের সন্তান। আমাদের চেতনায়, আমাদের হৃদয়ে অনেক বেদনা।’

তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু আমাদের রাজনৈতিক স্বাধীনতার লিগ্যাসি, তার কন্যা শেখ হাসিনা আমাদের অর্থের মুক্তির সংগ্রামের লিগ্যাসি। বাংলাদেশে এই দুই লিগ্যাসি টিকে আছে দাপটের সঙ্গে। যতদিন বাংলাদেশ থাকবে, যতদিন পতাকা উড়বে, ততদিন এ দেশে দুটি মানুষের মৃত্যু হবে না। একজন বঙ্গবন্ধু আরেকজন শেখ হাসিনা।’

মতবিনিময় সভায় আরও বক্তব্য দেন- আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ড. আব্দুর রাজ্জাক, লেফটেন্যান্ট কর্নেল অবসরপ্রাপ্ত মো. ফারুক খান, অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, সংসদ সদস্য শেখ হেলাল, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান, দক্ষিণের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফীসহ জেলা-উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতারা।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, কর্তৃপক্ষ এর দায়ভার নেবে না।

top