জাতীয় প্রধান খবর

ব্রিটেনে স্বল্প মেয়াদী ও দীর্ঘ মেয়াদী ভিসার সুযোগ আসবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

হটনিউজ ডেস্ক :

যুক্তরাজ্যে সফররত বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন লন্ডনে বিজনেস ডায়লগ অনুষ্ঠানে, ব্রিটিশ মূলধারার ব্যবসায়ীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের জন্য আহবান জানিয়ে বক্তব্য দিয়েছেন। বৃহস্পতিবার লন্ডন সময় সন্ধ্যা ৭টায় বাংলাদেশ হাইকমিশন, ব্রিটিশ বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্সের যৌথ উদ্যোগে “বিজনেস ডায়লগ” অনুষ্ঠিত হয়েছে সেন্ট্রাল লন্ডনের কপথর্ণ হোটেলে। এই অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এ কে আব্দুল মোমেন ।

বাংলাদেশ ও ব্রিটেনের সম্পর্কের ৫০ বছরে কভিড পরবর্তী নতুন অর্থনৈতিক ভিশনকে বিষয় নিয়ে এই অনুষ্ঠানে বিবিসিসিআই এর লন্ডন রিজিয়ন প্রেসিডেন্ট এএইচএম নুরুজ্জামানের পরিচালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিবিসিসিআই ইউকে প্রেসিডেন্ট বশির আহমেদ।

ব্রিটিশ চেম্বার অব কমার্সের সিইও রিচার্ড বার্গ বলেন, বাংলাদেশ এখন বিশ্বের অন্যতম সম্ভাবনার নাম। বাংলাদেশের অগ্রগতি আমেরিকার চেয়ে দ্রুত বর্ধনশীল।

এরপর বক্তব্য রাখেন রোটারিয়ান স্যার হুগো সোয়াইর কেসিএম, লর্ড শেখ, বিসিসিআই এর এডভাইজার শাহগীর বখত ফারুক, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাজেদুর রহমান ফারুক।

বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রী একে আব্দুল মোমেন বক্তব্যে বলেন, ব্রেক্সিটের পর বাংলাদেশ হতে পারে ব্রিটেনের অন্যতম ব্যবসায়ী সহযোগী। বাংলাদেশের সাথে ভারত ও চায়নার যোগাযোগ ভালো, সাউথ এশিয়ান অনেক দেশের সাথে আমাদের যোগাযোগ ভালো, সেই সুযোগ কাজে লাগিয়ে বাংলাদেশে বিনিয়োগ করুন। মন্ত্রী আরো বলেন, খুব শীঘ্রই বাংলাদেশ থেকে শর্ট টার্ম ও দীর্ঘমেয়াদী ভিসা সিস্টেমে এক্সপার্ট মাইগ্রেশন পাঠানোর জন্য সুযোগ সৃষ্টি হবে।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে খুব দ্রুত টিকা দেয়ার জন্য দেশেই টিকা তৈরির জন্য সিনোফার্মের সাথে চুক্তি হয়েছে। বাংলাদেশের কোম্পানি ইনসেপ্টা মাসে ৪০ মিলিয়ন টিকা তৈরি করতে পারবে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশে ব্রিটিশ বিনিয়োগ বাড়ানোর জন্য ব্রিটিশ চেম্বার অব কমার্সের প্রতি আহবান জানান। তিনি বলেন, বাংলাদেশে ফ্যাক্টরি থেকে শুরু করে যেকোন ব্রিটিশ উদ্যোগকে আমরা স্বাগত জানাই।

যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার সাঈদা মুনা তাসনিম তাঁর বক্তব্যে বাংলাদেশের সাফল্যের চিত্র তুলে ধরেন।