জাতীয় প্রধান খবর প্রধানমন্ত্রী কর্নার

নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে মানুষ গ্রামে গিয়েছিল বলেই করোনা সংক্রমণ এতটা বেড়েছে : প্রধানমন্ত্রী

হটনিউজ ডেস্ক:

স্বাস্থ্যবিধি পালনে মানুষের উদাসীনতা দেখে হতাশা প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনতে ‘কঠোর বিধিনিষেধ’ দেওয়া হয়েছে। আপনাদের প্রতি আহ্বান অন্তত নির্দেশনাগুলো মেনে চলুন। নিজে সুরক্ষিত থাকুন, অন্যকে সুরক্ষিত রাখুন। সবাই এটা মেনে চললে আমরা করোনা নিয়ন্ত্রণে আনতে পারব। ভ্যাকসিন আসা শুরু হয়েছে সমস্যা হবে না।

আজ শনিবার (৩ জুলাই) জাতীয় সংসদের সমাপনী অধিবেশনে দেওয়া এক বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আপনারা অন্ততপক্ষে নির্দেশনাগুলো মেনে নিজেকে সুরক্ষিত রাখেন, অন্যকে সুরক্ষিত রাখেন। অন্তত এটা ছড়াতে দিয়েন না। মাস্ক পরা, হাত পরিষ্কার করা আর যেন কোনোমতেই যেন সংক্রমিত না হয়, তার জন্য দূরত্ব বজায় রাখা। এটা করতে পারলেই কিন্তু আমরা নিয়ন্ত্রণ করতে পারব।

তিনি বলেন, ঈদুল ফিতরে নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে মানুষ গ্রামে গিয়েছিল বলেই করোনা সংক্রমণ এতটা বেড়েছে। এ সময় সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে আহ্বান জানান তিনি। গত ঈদে নিষেধ করা সত্ত্বেও মানুষ বাড়ি গিয়েছিল, তখন সরকারের কথা শুনলে এখন হয়তো পরিস্থিতি এতটা খারাপ হতো না বা সংক্রমণও এতটা বাড়ত না।

এ সময় স্কুল-কলেজ খোলা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি বলব, একটু ক্ষতি হচ্ছে। টিকা দিয়েই আমরা কিন্তু সব স্কুল খুলে দেব। একটা ছেলে মেয়ে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হবে, এখন তো শিশুদেরও হচ্ছে। আমরা জেনেশুনে লেখা পড়া শিখব, কিন্তু এর জন্য মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেব কিনা এটা বুঝে দেখবেন।

তিনি বলেন, বাচ্চারা পড়াশোনা করবে এটা আমরা চাই। আমি বলব যে, হ্যাঁ, স্কুল বন্ধ আছে। কিন্তু পড়াশোনা যাতে বন্ধ না হয় সে জন্য টেলিভিশনের মাধ্যমে বিভিন্ন ক্লাস প্রচার হচ্ছে। তাছাড়া রেডিও আমরা উন্মুক্ত করে দিয়েছি। রেডিওর মধ্যে যাচ্ছে সুযোগ, অনলাইনে যাচ্ছে, যে যেভাবে সুযোগ পাচ্ছে ক্লাস চালিয়ে রাখতে আমরা চেষ্টা করছি।