ঢাকা হটনিউজ স্পেশাল

১০২টি পাসপোর্টসহ অমির দুই সহযোগী গ্রেপ্তার

হটনিউজ ডেস্ক:

রাজধানীর আশকোনা থেকে চিত্রনায়িকা পরী মণিকে ধর্ষণচেষ্টা ও হত্যাচেষ্টা মামলার আসামি তুহিন সিদ্দিকী অমির দুই সহযোগী মসিউর রহমান ও মো. বাসিরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

দক্ষিণখান থানাধীন আশকোনার সিঙ্গাপুর ট্রেনিং ইনস্টিটিউট নামের প্রতিষ্ঠানে সাভার থানা পুলিশের অভিযান শেষে আজ বুধবার সকাল সাড়ে ৭টায় তাঁদের আটক করা হয়। দুজনকে ১০২টি পাসপোর্ট, ৭৭টি সাদা স্ট্যাম্প ও ১৯ হাজার ৭৭০ টাকাসহ আটকের পর দক্ষিণখান থানায় পাসপোর্ট আইনে মামলা করেন সাভার মডেল থানার পরিদর্শক কামাল হোসেন।

বুধবার দুপুরে এসব তথ্য জানান দক্ষিণখান থানার পরিদর্শক আজিজুল হক।

এ ছাড়া তুহিন সিদ্দিকী অমি চিত্রনায়িকা পরী মণিকে ধর্ষণচেষ্টা ও হত্যাচেষ্টা মামলা এবং মাদকের মামলায় গ্রেপ্তার রয়েছেন।

গত বুধবার গভীর রাতে সাভারের বিরুলিয়ায় ঢাকা বোট ক্লাবে গেলে পরী মণিকে ধর্ষণ ও হত্যা চেষ্টা করা হয় বলে অভিযোগ তোলেন ঢাকাই ছবির আলোচিত এই নায়িকা। পরে বনানী থানায় অভিযোগ নিয়ে গিয়েও কোনো প্রতিকার না পেয়ে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজ থেকে মারধর ও ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ করলে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

পরে পুলিশের মাধ্যমেই রাজধানীর রূপনগর থানা ঘুরে পরী মণির লিখিত অভিযোগ মামলা হিসেবে রেকর্ডভুক্ত হয় সাভার মডেল থানায়।

মামলায় প্রধান আসামি করা হয় নাসির ইউ মাহমুদ ওরফে নাসিরউদ্দিন মাহমুদকে। নাসির জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য, কুঞ্জ ডেভলপার্স লিমিটেডের চেয়ারম্যান, উত্তরা ক্লাব লিমিটেডের সাবেক প্রেসিডেন্ট ও ঢাকা বোট ক্লাবের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য (বিনোদন ও সংস্কৃতি) বলে জানিয়েছে পুলিশ।

মামলায় নাসির, তুহিন সিদ্দিকী অমি ও অজ্ঞাতপরিচয় আরও চারজনকে আসামি করা হয়েছে। এদিকে রাজধানীর বিমানবন্দর থানায় নাসির, অমিসহ গ্রেপ্তার পাঁচজনকে মাদক মামলায় ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আজ মঙ্গলবার দুপুরে সিএমএম আদালতে তোলা হয়। আদালত নাসির ও অমিকে সাতদিন করে এবং অপর তিন আসামিকে তিনদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন বিচারক।