অপরাধ হটনিউজ স্পেশাল

কলেজছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টা, সাবেক সেনা সদস্য কারাগারে

হটনিউজ ডেস্ক:

পাবনার ভাঙ্গুড়ায় কলেজছাত্রীকে শ্লীলতাহানির মামলায় সাবেক সেনা সদস্য সোহেল রানা জগলুকে (৪৫) আটক করে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার মন্ডতোষ ইউনিয়নের মন্ডতোষ গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে জগলুকে আটক করা হয়। জগলু ওই গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে।

মামলার এজাহার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ১৯ জানুয়ারি রাত ৮টার দিকে ওই ছাত্রী চাচার দোকানে মায়ের জন্য পান কিনতে যায়। দোকান থেকে ফেরার পথে নির্জন এলাকায় আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা জগলু ওই ছাত্রীকে ধর্ষণের উদ্দেশে জোড়পূর্বক টেনে-হিঁচড়ে মাঠের মধ্যে নিয়ে যায়। এ সময় ওই কলেজছাত্রীর চিৎকারে আশপাশের লোকজন দৌঁড়ে আসলে জগলু পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় গত ২১ জানুয়ারি রাতে গ্রাম্য সালিস ডাকা হয়। কিন্তু জগলু সালিসে উপস্থিত না হয়ে উল্টো ওই কলেজছাত্রীর পরিবারের বিরুদ্ধে আদালতে উল্টো হয়রানির মামলা করেন। এতে গ্রামের প্রধানদের সহযোগিতায় ২২ জানুয়ারি দুপুরে থানায় লিখিত অভিযোগ করে কলেজছাত্রীর পরিবার।

এ বিষয়ে তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় ভাঙ্গুড়া থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা রুজু হয়। তবে ঘটনার পর থেকেই জগলু পলাতক ছিলেন। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে জগলু বাড়িতে আসলে পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গিয়ে তাকে আটক করে পাবনা জেলহাজতে পাঠায়।

মন্ডতোষ গ্রামের ইউপি সদস্য সাগর হোসেন বলেন, কলেজছাত্রীকে শ্লীলতাহানীর বিষয়ে গ্রামে সালিশ করে অভিযুক্ত অবসরপ্রাপ্ত সেনাসদস্যের বিচারের প্রক্রিয়া করা হয়। কিন্তু অভিযুক্ত সালিসে হাজির হয়নি বলে থানায় অভিযোগ দেওয়া হয়। পরে মামলা রুজু হলে জগলুকে আটক করে পুলিশ।

থানার ডিউটি অফিসার এসআই নাজমুল হক বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর তদন্ত শুরু হয়। তদন্তে অভিযোগের সত্যতা মিললে মামলা রুজু করে অভিযুক্তকে আজ বৃহস্পতিবার নিজ বাড়ি থেকে তাকে আটক করা হয়।