আন্তর্জাতিক জাতীয় ঢাকা প্রধান খবর রাজনীতি সারাদেশ

এবাররের রোহিঙ্গা সংকটকে জাতিগত নিধন বলার কথা ভাবছে যুক্তরাষ্ট্র

হটনিউজ ডেস্ক: এবাররে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী দেশটির রোহিঙ্গা মুসলমানদের ওপর যে ধ্বংসযজ্ঞ চালাচ্ছে তাকে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতিগত নিধন আখ্যায়িত করার কথা ভাবছে মার্কিন স্টেট ডিপার্টমেন্ট। শুক্রবার মার্কিন প্রশাসনের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে এ কথা জানানো হয়েছে। এ ছাড়া মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন চলমান রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে মিয়ানমার সরকারকে সহযোগিতা করতে দেশটির সেনাবাহিনীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বলেও বিবৃতিতে জানানো হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, বৃহস্পতিবার মিয়ানমার সেনাপ্রধান জেনারেল মিন অং হ্লাইংকে ফোন করেন রেক্স টিলারসন। এ সময় টিলারসন রোহিঙ্গা মুসলমানদের ওপর মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নির্যাতন বন্ধের আহ্বান জানান। সেইসঙ্গে চলমান সমস্যা সমাধানে দেশটির বেসামরিক সরকারকে সহযোগিতার আহ্বান জানান মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। স্টেট ডিপার্টমেন্টের ওই বিবৃতিতে বলা হয়, সংকট সমাধান ও পালিয়ে যাওয়াদের ফিরিয়ে আনতে মিয়ানমার সরকারকে সাহায্য করতে মিন অংকের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন টিলারসন। একই সঙ্গে রাখাইন অবস্থান করা রোহিঙ্গাদের সহায়তা পৌঁছানোর জন্য আন্তর্জাতিক ত্রাণ সংস্থাগুলোকে প্রবেশের অনুমতি দেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।


উল্লেখ্য, গত ২৫ আগস্ট রাখাইন রাজ্যে মিয়ানমার সেনাবাহিনী ও স্থানীয় উগ্রপন্থী বৌদ্ধরা সংখ্যালঘু রোহিঙ্গাদের ওপর বর্বর সহিংসতা শুরু করে। এরপর থেকে ছয় লাখের বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে।

জাতিসংঘ এ অভিযানকে জাতিগত নিধন বলে উল্লেখ করেছে। এ ছাড়া বিষয়টি নিয়ে আন্তর্জাতিকভাবে ব্যাপক চাপের মধ্যে রয়েছে দেশটির নেত্রী অং সান সু চির সরকার। কিন্তু চীন সমর্থিত দেশটির সেনাবাহিনী এ ব্যাপারে অনড় অবস্থানে রয়েছে।