জাতীয় প্রধান খবর বরিশাল ভোলা রাজনীতি

ভোলায় কোন জঙ্গি ও সন্ত্রাসী নেই- তোফায়েল আহমেদ

unnamedভোলা প্রতিনিধি: বাণিজ্য মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, জঙ্গি ও সন্ত্রাস দমনে পুলিশ দক্ষতার সাথে কাজ করছে। ভোলায় কোন জঙ্গি ও সন্ত্রাসী নেই, আছে শুধু মাদক। ভোলার পুলিশ এবং জনগণ জঙ্গি, সন্ত্রাস ও মাদকের বিরুদ্ধে এক সাথে কাজ করছে। তিনি  শনিবার দুপুর ২ টায় জেলা পুলিশের আয়োজনে ভোলা সরকারি স্কুল মাঠে ভোলায় কমিউনিটি পুলিশিং ও জঙ্গি সন্ত্রাস বিরোধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাণিজ্যমন্ত্রী এ কথা বলেন।
সমাবেশে তিনি পুলিশের প্রশংসা করে বলেন, ঢাকার হলি আর্টিজান রেস্তোরায় সন্ত্রাসী হামলার পর আমি বিদেশীদের সাথে বৈঠক করেছি, তারা আমাকে বলেছিল আমাদের নিরাপত্তা কোথায়। আমি তাদের আশ^স্ত করেছিলাম আমাদের আইন শৃঙ্খলা বাহিনী তাদের দক্ষতা দিয়ে প্রমাণ করবে আপনারা নিরাপদেই থাকবেন। আমার সেই কথা আজ সত্যি হয়েছে। বাংলাদেশ পুলিশ জঙ্গি ও সন্ত্রাস দমনে করতে পেরেছে।
মন্ত্রী আরো বলেন, আমাদের সময় ভোলায় ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। নদী ভাঙ্গন রোধে আমি সর্বোচ্চ বরাদ্দ এনেছি। ভোলাকে ঢাকাসহ সারা দেশের সাথে যুক্ত করতে কাজ শুরু হয়েছে। বর্তমানে ভোলা-বরিশাল সড়কের ব্রীজ নির্মাণের জন্য ফিজিবিলিটির কাজ চলছে। অচিরেই ভোলা সারাদেশের সাথে যুক্ত হবে।
অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচকের বক্তব্যে আইজি এ কে এম শহীদুল হক বলেন, পুলিশ কোন দলের নয়, পুলিশ রাষ্ট্রের এবং জনগণের। পুলিশকে কোন দল বা গোষ্টি তাদের নিজের স্বার্থে ব্যবহার করতে পারবে না। দেশে কোন পুলিশ মানুষকে গুলি করে হত্যা করেনি। কিন্তু ২০১৩ সালে বিভিন্ন সময় দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে ১৮ জন পুলিশ হত্যা, ৩০০ পুলিশ পঙ্গু ও ৩ হাজারের বেশি পুলিশ সদস্যকে আহত করা হয়েছে। একটি গোষ্টির লক্ষ ছিলো দেশের পুলিশকে দুর্বল করা। এতোগুলো পুলিশ হত্যা করা হলো কোন রাজনৈতিক দল একটি বিবৃতিও দেয়নি।

unnamed
তিনি আরো বলেন, পুলিশ জঙ্গি দমনে একশনে গেলে একটি মহল সমলোচনা করেন। কেন তাদের জীবীত গ্রেফতার করা হয়নি। জঙ্গিরাতো সব সময় অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে পুলিশকে আক্রমন করলে পুলিশ বাধ্য হয়ে আক্রমন করে। তারাই দেশে জঙ্গিদের মদদ দিচ্ছে। তিনি জঙ্গি, সন্ত্রাস ও মাদক নিয়ন্ত্রণে কমিউনিটি পুলিশিং কমিটিকে সব ধরনের সহযোগীতা করার জন্য পুলিশ কর্মকর্তাদের নির্দেশ প্রদান করেন।
ভোলা জেলা কমিউনিটি পুলিশিং এর আহবায়ক শফিকুল ইসলাম এর সভাপতিত্ব অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ভোলা-৩ আসনের সংসদ সদস্য নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন, সরক্ষিত মহিলা সংসদ সদস্য এডভোকেট মমতাজ বেগম, বাংলাদেশ পুলিশের ডিআইজি শেখ মুহম্মদ মারুফ হাসান, জেলা প্রশাসক মোহাং সেলিম উদ্দিন, জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মমিন টুলু, ভোলা পৌর মেয়র মনিরুজ্জামনি মনির, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মোশারেফ হোসেন, ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ইউনুস, কাচিয়া ইউপি চেয়ারম্যান জহুরুল ইসলাম নকিব প্রমূখ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখবেন ভোলা জেলা পুলিশ সুপার মোঃ মোকতার হোসেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন সাংস্কৃতিক কর্মী তালহা তালুকদার বাঁধন।
অনুষ্ঠানে যোগ দিতে ভোলার ৭ উপজেলা থেকে কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সদস্যরা বিভিন্ন স্লোগানের মাধ্যমে মিছিল নিয়ে সকাল ৯টা থেকে ভোলা সরকারী স্কুল মাঠের সমাবেশস্থলে পৌছতে শুরু করে। এক সময় তা জন সমুদ্রে পরিণত হয়। এছাড়াও অনুষ্ঠানে ভোলার ৭ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান, পৌর মেয়র ও কমিশনারগণ সভায় যোগ দেন। সমাবেশ শুরু পূর্বে সকাল ১১টায় বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ ও আইজি এ কে এম শহীদুল হকের নেতৃত্বে কমিউনিটি পুলিশিং এর একটি র‌্যালী শহর প্রদক্ষিণ করে।