বিনোদন

হৃতিকের সঙ্গে কাজ করাটা পরাবাস্তব!

Pooja-indfghj-290x218বিনোদন ॥ হটনিউজ২৪বিডি.কম : বলিউড সুপারস্টার হৃতিক রোশনের বিশাল ভক্ত দক্ষিণী অভিনেত্রী পূজা হেজ। তাই ‘মহেঞ্জোদারো’র মাধ্যমে প্রিয় তারকার হাত ধরে হিন্দি ছবির দুনিয়ায় শুরুটা হওয়ার ঘটনা তার কাছে পরাবাস্তব (সত্যি ও স্বপ্নের মিশ্রিত রূপ) মনে হচ্ছে!

সিন্ধু সভ্যতার আলোকে আশুতোষ গোয়াড়িকরের ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপটের ছবিটিতে হৃতিকের প্রেমিকার ভূমিকায় অভিনয় করেছেন পূজা। ২৫ বছর বয়সী এই অভিনেত্রী বলেছেন, ‘আমি তার ভক্ত। তিনি আমার প্রিয় অভিনেতা। তাই তার সঙ্গে সত্যি সত্যি কাজ করতে পারা পরাবাস্তব ব্যাপার।’

বার্তা সংস্থা প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়াকে যোগ করে পূজা আরও বলেন, ‘মডেলিং শুরুর সময় আমার ঘনিষ্ঠ এক বন্ধু বলেছিলো, তার আশা আমি একদিন হৃতিকের সঙ্গে কাজ করবো। বলিউডে আমার প্রথম ছবিতেই সেটি সত্যি হয়েছে। স্বপ্ন সত্যি হলো।’

বলিউডে আসার আগে মডেল-অভিনেত্রী পূজা অভিনয় করেছেন তামিল সুপারহিরো ছবি ‘মুগামুডি’তে। পাশাপাশি তেলেগু ছবি ‘ওকা লায়লা কসম’ এবং ‘মুকুন্দ’তে দেখা গেছে তাকে।
প্রথম হিন্দি ছবি নিয়ে পূজার আশা, বলিউডে সাফল্যের সঙ্গে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে পারবেন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘অভিনয়শিল্পীদের জন্য তাদের প্রথম ছবি বিশ্বের কাছে অডিশনের মতো। কারণ কেউই আপনার কোনো কিছু আগে দেখেনি। দর্শক আপনাকে দেখতে অপেক্ষা করে। আমরা এমন একটি সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি যেখানে সবাই প্রত্যাশা করে প্রথম ছবি থেকেই নৈপুণ্য দেখাতে হবে।’

ছবিটিতে অভিনয়ের প্রতিটি অভিজ্ঞতা ভালো লেগেছে বলে জানালেন পূজা। কারণ এই সময়ে মহেঞ্জোদারোর সময়কার প্রেম দেখাই যায় না! তার কথায়, ‘আমাদের ছবিতে একটি খাঁটি প্রেমের গল্প আছে। এখনও এর আবেদন কমেনি। প্রযুক্তির পাগল ও ব্যস্ততায় ছোটাছুটি, নিয়ন জীবনের চেয়ে এটি পুরোপুরি ভিন্ন।’

‘মহেঞ্জোদারো’ মুক্তি পাবে আগামী ১২ আগস্ট। পূজা জানিয়েছেন, নিজের অভিনীত চরিত্রটি নিয়ে দর্শক প্রতিক্রিয়া জানতে মুখিয়ে আছেন তিনি। একই সঙ্গে ভীষণ নার্ভাসও লাগছে! তার ভাষ্য, ‘আমার সেরাটা দিয়েছি। ভালো কাজ দেখানোর চেষ্টা করেছি। আমি নার্ভাস। তবে স্নায়বিক শক্তিই উত্তম!’