আন্তর্জাতিক ঢাকা বিনোদন

সুন্দরী পর্যটকের ‘শ্লীলতাহানি’ করল ওরাংওটাং!

orang-s-20160715095424 আন্তর্জাতিক ডেস্ক:  মাসকয়েক আগে খবর এসেছিল, অস্ট্রেলিয়ায় এক ক্যাঙারু আচমকাই এক নারীকে আক্রমণ করে তার সিলিকন ইমপ্লান্টেড স্তন খুলে নেওয়ার চেষ্টা করেছিল। সেই খবর পুরনো হয়ে যাওয়ার পরই ফের এক পশুর হাতে নারী নির্যাতনের খবর এল! তফাতের মধ্যে এবার ক্যাঙারুর জায়গায় ওরাংওটাং- এই যা! আর ঘটনাস্থল ব্যাংককের সাফারি ওয়ার্ল্ড।

সাফারি ওয়ার্ল্ড ব্যাংককের অত্যন্ত জনপ্রিয় এক বিনোদন পার্ক। নানা প্রজাতির পশুদের সেখানে ছেড়ে রাখা হয়, যাতে তারাও স্বাধীনভাবে থাকতে পারে এবং পর্যটকরাও পান উন্মুক্ত বন্য জীবনের স্বাদ। সাফারি ওয়ার্ল্ডে কেউ চাইলে পশুদের সঙ্গে ছবিও তুলতে পারেন। তার জন্য পশুদের খাঁচার ভিতরে রাখার দরকার পড়ে না। মানুষের গা ঘেঁষেই দিব্যি ছবি তোলে তারা।

এহেন সাফারি ওয়ার্ল্ডেই ওরাংওটাংয়ের সঙ্গে ছবি তুলতে গিয়ে বিপদে পড়লেন এক নারী। তিনি শুধু দু’টি ওরাংওটাংয়ের সঙ্গে ছবি তুলতে চেয়েছিলেন। প্রাথমিকভাবে ব্যাপারটা নিয়ে যথেষ্ট অস্বস্তিতেও ছিলেন তিনি! প্রথম দিকে তার জড়তা কাটছিল না। খুব ভয়ে ভয়ে ওরাংওটাংদের পাশে গিয়ে বসেন। কয়েক সেকেন্ড পরেই অস্বস্তিতে পালিয়ে আসার চেষ্টা করেন।

ভিডিওতে দেখা যায়, প্রথম থেকেই ওরাংওটাংরা ছিল বেশ খোশ মেজাজে। ওই নারী যখন পালিয়ে আসার চেষ্টা করেন, তখন তাকে আটকে রাখতে চায় একটা ওরাংওটাং। এরমধ্যে একটা ওরাংওটাং ওই নারীকে চুমু দিয়ে বসে। তখনই ওই নারী পর্যটক হাসতে হাসতে দাঁড়িয়ে পড়েন। গাইডরাও অভয় দেন তাকে। বলেন, দুই হাত শরীরের দুই পাশে ছড়িয়ে রাখতে, তাহলে ওরাংওটাংরা তার কোমর জড়িয়ে ধরতে পারবে!
সাহস পেয়ে ওই নারী তাই করেন! তার পরেই ছবি তোলার সময় ওরাংওটাং হাত একটু করে উপরে তুলতে থাকে। এক পর্যায়ে হাত কোমর থেকে উঠে আসে নারী পর্যটকের বুকের ওপর। অবশ্য এতে ওই পর্যটক মোটেই বিরক্ত হননি। বরং এটাকে বেশ মজা হিসেবে নিয়ে হাসিতে মেতে ওঠেন।