জাতীয়

ব্যালটে সিলমারা কমেছে সহিংসতা বেড়েছে: সিইসি

47নিজস্ব প্রতিবেদক,  হটনিউজ২৪বিডি.কম ২৯ মে : পঞ্চম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন শেষে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী রকিবউদ্দীন বলেছেন, এবার জোর করে ব্যালটে সিলমারা কমলেও সহিংসতায় নিহতের সংখ্যা বেড়েছে।

শনিবার সন্ধ্যায় নির্বাচন কমিশনের (ইসি) মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

সিইসি বলেন, ৭১৭টি ইউপির নির্বাচন ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ পর্যায়ের বেশকিছু জায়গায় হানাহানির ঘটনা ঘঠেছে। বন্ধও করা হয়েছে। বৃষ্টি উপক্ষো করে ব্যাপক ভোটার উপস্থিতি ছিল। বিশেষ করে মহিলা ভোটারদের উপস্থিতি ছিল উল্লেখযোগ্য। সহিংসতায় কয়েক জনের প্রাণহানির খবর পাওয়া গেছে। ঠাকরগাঁওয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় দুজন পোলিং কর্মকর্তা নিহত হয়েছেন। এজন্য গভীর শোক প্রকাশ করছি। তাদের পরিবারের প্রতি সহমর্মিতা জানাচ্ছি।

পঞ্চম ধাপে নির্বাচন আরো ভালো হবে বলে আপনি বলেছিলেন কিন্তু ভাল হলো না কেন? এমন প্রশ্নের জবাবে কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ বলেন, আগে বলেছিলাম, এটা আমাদের আশা। পুলিশ থেকে শুরু করে র্যাব, আনসার, একটা কেন্দ্রে আটটা করে অস্ত্র, ২২ জনের মতো ফোর্স, এতো ঘন পরিবেশে সবকিছু আমরা করেছি। সার্বক্ষণিক টেলিফোন করছি। সেন্ট্রাল থেকে সেল করা হয়েছে। মুহুর্তে মুহুর্তে সংবাদ নেয়া হচ্ছে। এখন সহিংসতা যদি ঘটে, মানুষ যদি মনে করেন অন্যের মাথায় বাড়ি মেরে জয়ী হবো, এই মানসিকতা কন্ট্রোল করা দুরুহ।

তিনি বলেন, ইসি সার্বক্ষণিক মনিটরিং করেছে। টিভি খবরও মনিটরিংও করা হয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন মাধ্যম থেকে প্রাপ্ত প্রতিবেদনের ভিত্তিতে তাত্ক্ষনিক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। আমাদের নির্দেশনা ও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর শক্ত অবস্থানের কারণে কোথাও আগের রাতে সিল মারার ঘটনা ঘটেনি। যেখানে অনিয়ম হয়েছে সেখানে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছ্। সহিংসতার কারণে কোথাও কোথাও কেন্দ্র বন্ধ করা হয়েছে। এছাড়াও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্র আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী গুলিও করেছে।
হটনিউজ২৪বিডি.কম/এআর