জাতীয় লিড নিউজ

প্রত্যাহার হচ্ছে না ভ্যাটঃ এনবিআরকে সমর্থন জানিয়ে অর্থমন্ত্রীর দু:খ প্রকাশ

এনবিআরকে সমর্থন জানিয়ে অর্থমন্ত্রীর দু:খ প্রকাশ
এনবিআরকে সমর্থন জানিয়ে অর্থমন্ত্রীর দু:খ প্রকাশ

১০ সেপ্টেম্বর ২০১৫, নিরাপদনিউজ : বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের টিউশন ফি’র ওপর ভ্যাট ধার্য্য নিয়ে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) বিবৃতির ব্যাখা দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত। এনবিআর-এর বক্তব্যের প্রতি সমর্থন জানিয়ে তিনি বলেন, ‘বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপর ধার্য্যকৃত ভ্যাট প্রত্যাহার করা হবে না। ভ্যাট বিশ্ববিদ্যালয়কেই দিতে হবে।’

একইসঙ্গে সতন্ত্র বেতন কাঠামো গঠন ও নতুন বেতন কাঠামোয় সিলেকশন গ্রেড বাতিলের প্রতিবাদে আন্দোলনরত পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে করা নিজের ‘বিরূপ মন্তব্য’ প্রত্যাহার করে নিয়েছেন অর্থমন্ত্রী।

বৃহস্পতিবার বিকেলে সিলেটের সরকারি সার্কিট হাউসে সংবাদ সম্মেলন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত। সংবাদ সম্মেলনে তিনি এনবিআর-এর বক্তব্যের সমর্থন জানিয়ে তার ব্যাখ্যা প্রদান করেন। তিনি বলেন, আরোপিত ভ্যাট প্রত্যাহারের কোনো কারণ নেই। এটি রাজস্ব আয়ের ভালো উৎস।

ভ্যাট প্রত্যাহারে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের দাবি নাকচ করে দিয়ে মুহিত বলেন, এ ভ্যাট শিক্ষার্থীদের পরিশোধ করতে হবে না। পরিশোধ করবে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। আর এজন্য তাদের উচিত হবে না শিক্ষার্থীদের টিউশন ফি বাড়ানো।

অপর দিকে, সতন্ত্র বেতন কাঠামো এবং নতুন বেতন কাঠামোয় সিলেকশন গ্রেড বাতিলের প্রতিবাদে আন্দোলন শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে করা ‘শিক্ষকরা জ্ঞানের অভাবে আন্দোলন করছেন’ মর্মে দেওয়া বক্তব্যের জন্য ক্ষমা চেয়েছেন অর্থমন্ত্রী মুহিত। দু:খ প্রকাশ করে তিনি বলেন, আমার বক্তব্যে অবশ্যই শিক্ষকদের মানহানি হয়েছে। এজন্য আমি দু:খিত।

মুহিত বলেন, মন্ত্রিসভায় বেতন স্কেল অনুমোদন হওয়ার দিনে সাংবাদিকরা শিক্ষকদের প্রতিক্রিয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে আমি যে বক্তব্য দেই তাতে আমি যা বলতে চেয়েছিলাম তা সঠিকভাবে বলতে পারিনি বা বুঝাতে পারিনি। আমি আমার বক্তব্য প্রত্যাহার করে নিচ্ছি।

সোমবার মন্ত্রিসভায় বেতন কাঠামো অনুমোদন হওয়ার দিনে অর্থমন্ত্রী বলেছিলেন, বেতন স্কেল নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা যে আন্দোলন করছেন তা জ্ঞানের অভাবে। তার এ বক্তব্য প্রকাশের পর শিক্ষকদের মধ্যে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির ফেডারেশন মন্ত্রীর বক্তব্য প্রত্যাহার ও ক্ষমা চাইতে ২৪ ঘণ্টার আলটিমেটাম দেন গতকাল। এই সময়ের মধ্যেই অর্থমন্ত্রী তার বক্তব্য প্রত্যাহার করে নিলেন।

এদিকে, বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের টিউশন ফি থেকে ভ্যাট প্রত্যাহারের দাবিতে রাজধানীর রামপুরা, ধানমন্ডি,বানানীসহ বেশ কয়েকটি এলাকার সড়ক অবরোধ করে সকাল থেকেই বিক্ষোভ করছে শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার বেলা সোয়া ১১টা থেকে ‘নো ভ্যাট অন এডুকেশন’-এর ব্যানারে রাজধানীর ছয়টি পয়েন্টে শিক্ষার্থীদের এ বিক্ষোভ কর্মসূচি চলছে।

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভ্যাট আদায় বিষয়ে আজ বৃহস্পতিবার এক বিবৃতি দিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর)। এনবিআর বলছে, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীরা বর্তমানে যে টিউশন ফি দেন তার মধ্যেই ভ্যাট অন্তর্ভুক্ত আছে। তাই শিক্ষার্থীদের টিউশন ফি বাড়ার কোনো সুযোগ নেই।