অর্থ ও বাণিজ্য খুলনা

ডান হাত,বাম হাত আর অজুহাত এই মূলমন্ত্র নিয়েই চলছে আইডিয়াল

download (25)মেহেরপুর প্রতিনিধি:ডান হাত,বাম হাত আর অজুহাত এই মূলমন্ত্র নিয়েই আইডিয়াল সেভিংস এন্ড ক্রেডিট কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিঃ এর মত গ্রাহকদের সাথে নানা ছলচাতুরী করে যাচ্ছে সমবায় অফিস থেকে রেজিষ্ট্রেশন নং নেওয়া এ সকল সেভিংস এন্ড ক্রেডিট কো-অপারেটিভ সোসাইটি গুলো। এমন অভিযোগ বিভিন্ন ভাবে হয়রানীর স্বীকার হওয়া গ্রাহকদের।

বামন্দী বাসস্ট্যান্ডে অবস্থিত ভোরের আলো সেভিংস এন্ড ক্রেডিট কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিঃ এর পরিচালক সম্প্রতি সময়ে তার প্রতিষ্ঠানে চাকুরী দেওয়ার জন্য বেশ কয়েকজনের কাছ থেকে ২ লক্ষ কিংবা তার থেকে অধিক টাকা গ্রহণ করে। শর্ত থাকে যে চাকুরী ছেড়ে দিয়ে জামানত হিসেবে টাকা ফেরত দেওয়া হবে। কিন্তুু চাকুরী ছেড়ে দেওয়ার পরও জামানতের টাকা ফেরত দিচ্ছে না ভোরের আলো সেভিংস এন্ড ক্রেডিট কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিঃ পরিচালক রকিবুল ইসলাম। ঠিক একই ভাবে মেধাবী সেভিংস এন্ড ক্রেডিট কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিঃ এর গ্রাহকরা টাকার জন্য ধর্ণা দিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটির সামনে। কয়েকদিন আগে চিটিং মামলায় মেধাবী সেভিংস এন্ড ক্রেডিট কোÑঅপারেটিভ সোসাইটির পরিচালক মনিরুল ইসলামকে জেল হাজতে প্রেরন করেছে গাংনী থানা পুলিশ। গাংনী থানার ওসি আলমঙ্গঅর হোসেন জানিয়েছেন, ৪২০ ও ৪০৬ ধারার একটি চিটিং মামলায় মনিরুল ইসলাম পলাতক ছিল। পুলিশ অভিযান চালিয়ে এ উপজেলার মটমুড়া গ্রামের তার নিজ বাড়ি থেকে আটক করে। পরে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক গ্রাহক বলেন প্রতিদিনই আইডিয়ালের ম্যানেজার ও পরিচালকের দ্বারস্থ হতে হচ্ছে কিন্তুু টাকা দিচ্ছে না। তাছাড়া এই সুযোগে অনেকেই তাদের টাকা ফেরত নেওয়ার জন্য সুদের টাকা না নিয়ে আসল টাকা থেকে কিছু টাকা বাদ দিয়ে দিচ্ছে। এতে করে বজলুর লাভই হচ্ছে। কারণ সব টাকা তো দেওয়া লাগছে না। ফলে গ্রাহকদের ক্ষতির মুখে পড়তে হচ্ছে।