খুলনা জাতীয়

গভীর রাত অবধি চলছে কেসিসির সড়ক সংস্কার কাজ

images (10)খুলনা ব্যুরো:খুলনা সিটি কর্পোরেশন এলাকার বিভিন্ন পাড়া মহলার জরাজীর্ণ ভাঙ্গাচোরা অন্তত অর্ধ শতাধিক রাস্তার মেরামত কাজ জোরেশোরে শুরু হয়েছে। নিয়ম ভেঙ্গে গভীর রাত অবধি কাজ করা হয় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।রোববার রাত সাড়ে ৯টার দিকে ১৯ নং ওয়ার্ডের অন্তর্ভূক্ত বি কে রায় রোড ইট কার্পেটিং এর কাজ চলছে। এলাকাবাসী জানান, প্রায় দু’তিন মাস যাবত গুরুত্বপূর্ণ এ রাস্তাটি সংস্কারের নামে খোড়াখুড়ি করে ব্যবহারের সম্পূর্ণ অনুপযোগি করে রাখা হয়েছিল। সে সময় দু’পাশে ড্রেন তৈরি করা হয়েছে। পরবর্তীতে অব্যবহৃত ইট-খোয়া, বালি, রাবিশ যত্রতত্র স্তুপ করে রাখায় চলাচল করা ছিল দুস্কর। হঠাৎ করেই ঠিকাদার রাস্তা মেরামতের জন্য লেবার নিয়োগ দিয়ে কাজ শুরু করেছে এবং কর্পোরেশন থেকে রোলার, পানির গাড়ি, পেলোডার মেশিন এনে রেশোরে কাজ চালাচ্ছে। রোববার রাত ৯টার দিকে কেসিসি’র প্রধান নির্বাহী প্রকৌশলী লিয়াকত আলী শরীফ রাস্তার কাজ দেখতে আসেন। সেখানে স্থানীয় মানুষের ভীড় জমে গেলে নির্বাহী প্রকৌশলী কাজটি দ্রুত হওয়ার জন্য বিদায়ী মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেকের প্রসংশাসূচক নানা মন্তব্য করতে থাকেন। রাত ১০টার দিকে মিডিয়া কর্মীরা সেখানে উপস্থিত হলে লিয়াকত আলী শরীফ দ্রুত স্থান ত্যাগ করেন এবং গাড়িতে উঠে চলে যান।দায়িত্ব প্রাপ্ত ঠিকাদার মোঃ এসকান্দার আলী জানান, এ রাস্তা দিয়ে ওয়ার্ডের তিনটি ভোট কেন্দ্রে যাতায়াত করতে হয় বলে জরুরী ভিত্তিতে কাজ করানো হচ্ছে। ব্যালট পেপার আনা নেয়া, ভোট গ্রহণ কর্মকর্তা, ভোটার ও আইন শৃংখলা রক্ষাবাহিনীর গাড়িগুলোর যাতায়াতের সুবিধার্থে এ সিদ্ধান্ত।কেসিসি’র প্রধান নির্বাহী প্রকৌশলী লিয়াকত আলী শরীফ জানান, ভোট কেন্দ্রে যাতায়াতের সুবিধার জন্য শুধুমাত্র রাস্তার খোয়ার লেভেলিংয়ের কাজ করা হয়েছে। এটি টেম্পোরারী আয়োজন। পরে সিডিউল মোতাবেক নির্ধারিত কাজ হবে। নির্বাচন সংক্রান্ত আলাপ করতে যাইনি।