অপরাধ ঢাকা

৭ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

kara1নেত্রকোনা প্রতিনিধি: নেত্রকোনার মদন উপজেলার দেওশ্রী গ্রামের বহুল আলোচিত প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে ঘুমন্ত অবস্থায় স্বামীকে কুপিয়ে হত্যার দায়ে স্ত্রীসহ ৭জনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও প্রত্যেককে ১০হাজার টাকা জরিমানা এবং অনাদায়ে ৬মাসের সশ্রম কারাদন্ডাদেশ দিয়েছেন অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত। সোমবার দুপুরে জনাকীর্ণ আদালতে মারফত আলী হত্যা মামলার ১৮ বছর পর এই রায় দেন অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোঃ আব্দুল হামিদ । দন্ডপ্রাপ্তরা হচ্ছে ,স্ত্রী খোদেজা খাতুন ,একই গ্রামের সাহাব উদ্দিন ,আব্দুল গণি ,মোবারক , কোবেদ আলী ,তমজিদ ও লুৎফুর রহমান । নেত্রকোনা জজ আদালতের সহকারী পিপি সুভাষ বণিক অজয় জানান, ১৯৯৪সালের ৩০মে সন্ধ্যায় দেওশ্রী গ্রামের আলাল উদ্দিন ও সাহাব উদ্দিনের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ হয় । সংঘর্ষের ঘটনায় আলাল উদ্দিনের লোকজনদের ফাঁসাতে ওই দিন ভোর রাতে মারফত আলীকে কুপিয়ে খুন করে সাহাব উদ্দিন খোদেজা খাতুন ও অন্য আসামীরা। পরদিন জোর পূর্বক টিপসই নিয়ে মারফত আলীর ছেলে হাছু মিয়াকে দিয়ে আলাল উদ্দিনদের বিরুদ্ধে মদন থানায় হত্যা মামলা করায় খোদেজা খাতুন । পুলিশি তদন্তে সাহাব উদ্দিন ও খোদেজা খাতুনেরা নিজেরাই মারফত আলীকে হত্যা করার ঘটনা বেরিয়ে আসে। পুলিশ ১৯৯৪সালে ৩১ ডিসেম্বর খোদেজা খাতুন সহ ১৩ জনকে আসামী করে আদালতে অভিযোগপত্র দেয়। এরই মধ্যে ৬ আসামী মারা যাওয়ায় তাদেরকে মামলা থেকে বাদ দেওয়া হয়। শুনানী শেষে স্বাক্ষী প্রমানের ভিত্তিতে আজ সোমবার আদালত এই রায় দেন। রায় প্রদানের সময় ২জন আসামী তমজিদ ও লুৎফুর রহমান আদালতে উপস্থিত থাকলেও বাকী ৫জন পলাতক রয়েছে।