অপরাধ ঢাকা সারাদেশ

টাকা পাচারের কথা স্বীকার করলেন ডেসটিনির জিয়াউল

images (5)আদালত প্রতিবেদক:বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন ছাড়া মাল্টি লেভেল মাকেটিং কোম্পানি ডেসটিনির সহযোগী প্রতিষ্ঠান বেস্ট এভিয়েশন লিমিটেডের ৪১ কোটি টাকা অবৈধভাবে বিদেশে পাচর করার কথা স্বীকার করলেন জিয়াউল আলম ওরফে বাচ্চু মোল্লা ওরফে ওসমান (৩০)। গতকাল ঢাকার মহানগর হাকিম রেজাউল করিমের খাস কামড়ায় আসামি জিয়াউল ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে এ কথা জানান। এর আগে গত ৪ জুন আসামি জিয়াউলকে পাঁচ দিন রিমান্ডে নেয়ার অনুমতি দেয় আদালত। রিমান্ডে থাকা কালিন সময়ে আসামি জিয়াউল মামলার তদন্ত কর্মকর্তার কাছে স্বীকারোক্তি দেয়ার কথা জানালে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের উপ-পরিচালক মোজাহার আলী সরদার আসামির জবানবন্দি রেকঢর্ড করার আবেদন করেন আদালতের কাছে। আসামি ওসমান হলেন ইসলাম ট্রেডিং ইন্টারন্যাশনালের মালিক শফিকুলের শ্যালক। শফিকুল বর্তমানে রিমান্ডে রয়েছেন। আসামি জিয়াউলকে দুদকের দায়ের করা কলাবাগান থানার মামলা নং-৩৩ এ গ্রেফতার দেখানো হয়। আর বেস্ট এভিয়েশন লিমিটেড বেস্ট এয়ার নামে পরিচিত। এ মামলায় সর্বমোট ডেসটিনির এমএলএম অ্যাকাউন্ট থেকে ১ হাজার ৯৩৫ কোটি টাকা সরানোর অভিযোগ আনা হয় আসামিদের বিরুদ্ধে। এ মামলাতেও ডেসটিনির এমডি রফিকুল আমিন, ডেসটিনির চেয়ারম্যান মোহাম্মদ হোসেন আদালতের কাছে স্বীকারোক্তি দিয়েছিলেন। বর্তমানে রফিকুল এবং হোসেন কারাগারে রয়েছেন।