অপরাধ ঢাকা

শিবপুরে ৪ বাড়িতে দুধুর্ষ ডাকাতি

images (4)শেখ আঃ জলিল নরসিংদী থেকে:নরসিংদীর শিবপুর উপজেলার জয়নগর ইউনিয়নের কামরাব বেতাগীয়া গ্রামে গত ৮ জুন শনিবার রাত ১১ টায় এক দূধুর্ষ ডাকাতি সংঘঠিত হয়। এসময় ১৫/২০ জনের ডাকাতদল উক্ত গ্রামের কমর উদ্দীন,রেজু মিয়া,কাঞ্চন মিয়া ও আঃ বাতেনের বাড়িতে অস্ত্রের মুখে গৃহকর্তাদের জিম্মি করে নগদ ৮ লাখ টাকা ও ১০ ভরি স্বর্ণালংকান লুট করে নিয়ে যায়। তবে এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থ গৃহকর্তা,এলাকাবাসি,স্থানীয় ইউপি সদস্য ঘটনাটিকে ডাকাতি বললেও পুলিশ ও ইউপি চেয়ারম্যান রহস্যজনক কারনে বলছেন এটা ডাকাতি নয় চুরি। ফলে পুলিশ ও ইউপি চেয়ারম্যানের ভূমিকা নিয়ে জনমনে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

এ ব্যাপারে বেতাগীয়া গ্রামের এলাকাবাসি জানান, ঘটনাটি ডাকাতি হওয়া সত্ত্বেও পুলিশ থানায় চুরির অভিযোগ হিসেবে অনুভুক্ত করেছেন। স্থানীয়দের অভিযোগ একটি প্রভাবশালী মহল ও থানা পুলিশ রহস্যজনক কারনে ক্ষতিগ্রস্থদের না জানিয়ে পুলিশ চুরির ডায়রী করেছেন। এ ব্যাপারে গৃহকর্তা মোঃ কাঞ্চন মিয়া বলেন, ডাকাতরা আমাদের বাড়ির সবাইকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে এবং আমার গলায় চুরি ধরে নগদ অর্থ সহ স্বর্ণালংকান লুট করে নিয়ে যায়। আমরা থানায় এ ব্যাপারে এখনো কোন মামলা বা অভিযোগ করিনী। নাটকীয় এ ঘটনায় অত্র গ্রামের বর্তমান ইউপি সদস্য আঃ মোতালিব ও ইউনিয়ন বি,এন,পির সাংঘঠনিক সম্পাদক জামাল উদ্দীন ভূইয়া তিলক মিয়ার সাথে ফোনে কথা হলে তারা ঘটনাটিকে ডাকাতি বলে স্বীকার করলেও ইউপি চেয়ারম্যান ও পুলিশ বলছে চুরি। এলাকাবাসি বলছেন, কিছু প্রভাবশালী মহল থানা পুলিশের সাথে আতাঁত করে রহস্য জনক কারনে ঘটনাটি চুরি বলে অপপ্রচার চালাচ্ছেন এবং রহস্যজনক কারনে ডাকাতির ঘটনাটি অন্যদিকে নেয়ার পায়তারা করছেন। জয়নগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গাজী ইমরান হোসেন বাচ্চু জানান,পাশ্ববর্তী বাড়িতে অনুষ্ঠিব্য ওরশে ঐ বাড়ির লোকজন চলে যাওয়ার সুযোগে চুরেরা বাড়িতে ঢুকে চুরি করেছে। অন্যদিকে শিবপুর থানার ওসি মোঃ কে,এম ফিরুজ আল জালালের সাথে মোবাইলে কথা হলে তিনি জানান, ঘটনাটি মূলতঃ ডাকাতির নয় এটা চুরির এবং থানায় চুরির ঘটনায় ডায়রী করা হয়েছে। তবে ডাকাতির এ ঘটনাটি নিয়ে বিভিন্ন মহলের নানমূখি বক্তব্যে ঘটনাটি নিয়ে রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে।