অপরাধ চট্টগ্রাম

যৌতুকের জন্য নির্যাতন চালিয়ে গৃহবধূকে হত্যা

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক, চাঁদপুর: যৌতুকের টাকা না পেয়ে সাবিনা বেগম (২২) নামের এক গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যা করেছে পাষন্ড স্বামী। শনিবার সকালে চাঁদপুর সদর উপজেলার নুরুল্যাহপুর গ্র্রামের হাজড়া বাড়িতে এঘটনা ঘটে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, গত তিন বছর আগে নুরুল্লাপুর গ্রামের হাবিবুলাহ হাজরা’র ছেলে হেলাল হাজরার পারিবারিক ভাবে বিয়ে হয় সাবিনার। বিয়ের পর থেকেই স্বামী ও শ্বাশুড়ি নেশপাতিন্নেছা বেগম যৌতুকের দাবিতে সাবিনার উপর অমানিবক নির্যাতন চলাতো। গত শনিবার রাতে যৌতুকসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে শ্বাশুড়ির সাথে কথাকাটাকাটি হয় সাবিনার। এর এক পর্যায়ে তার স্বামী শ্বাশুড়ি মিলে তাকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে মারাত্মক যখম করে। অথচ সাবিনার চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয় নি। পরে সকালের দিকে সাবিনা মৃত্যু কোলে ঢলে পড়ে।

সাবিনার বাবা মো: আবদুল বাতেন জানান, শনিবার রাতেও আমার মেয়ে আমাকে ফোন করে খুব কান্নাকাটি করে। পরে আমি বাড়িতে গিয়ে দেখি আমার মেয়ে মারা গেছে। তার গায়ে প্রচুর আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে।ঘটনার পর থেকে স্বামী হেলাল পলাতক রয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।এ ঘটনায় নিহত গৃহবধুর বাবা আবদুল বাতেন বাদী হয়ে চাঁদপুর মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। চাঁদপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মাহবুব মোর্শেদ জানায়, লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্ত শেষে এ ঘটনার মূল রহস্য উদঘাটিত হবে।