অপরাধ বরিশাল

চার স্কুলছাত্রী অপহরণকালে উদ্ধার

নিজস্ব সংবাদদাতা, কলাপাড়া: গার্মেন্টস এ কাজ দেয়ার কথা বলে অপহরনকালে চার কিশোরীকে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। পটুয়াখালী মহাসড়কের চৌরাস্তা এলাকা থেকে দুপুরে এদেরকে উদ্ধার করা হয়। এরা হচ্ছে রাজ্জাক পন্ডিতের মেয়ে ফাতেমা, ইব্রাহিম হাওলাদারের মেয়ে লিজা, আমির হোসেনের মেয়ে রিপা ও জালাল আকনের মেয়ে পপি। প্রথম তিনজন পক্ষিয়াপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী। আর পপি তেগাছিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী। এদের সবার বাড়ি মিঠাগঞ্জ ইউনিয়নের মেলাপাড়া আদর্শগ্রাম সংলগ্ন এলাকায়। শনিবার সকালে এদের সবাইকে একই এলাকার শামসুল হকের ছেলে শাহাবুদ্দিন গার্মেন্টসএ কাজ দেয়ার কথা বলে কলাপাড়ায় এনে একটি বাসে পটুয়াখালী পাঠিয়ে দেয়। শাহবুদ্দিনের এক সহযোগী অপর একটি বাসে পিছনে পটুয়াখালী যায় বলে উদ্ধার হওয়া ছাত্রীরা জানায়। চার ছাত্রী পটুয়াখালী গিয়ে বাস থেকে চৌরাস্তায় নেমে ভুলপথে মির্জাগঞ্জগামী সড়কে হাটতে থাকে। এসময় বৃষ্টি নামলে তারা সবাই একটি দোকানে প্রবেশ করে। সেখানে অপেক্ষা করতে থাকে। দোকানির এসময় তাদের কথাবার্তা শুনে সন্দেহ জাগে। তিনি পটুয়াখালী সদর থানা পুলিশে খবর দেয়। পটুয়াখালীর পুলিশ সুপার উদ্ধার হওয়া ছাত্রীদের কথা শুনে ঘটনার সঙ্গে জড়িত হোতা শাহাবুদ্দিনকে গ্রেফতারের জন্য কলাপাড়া থানা পুলিশকে নির্দেশ দেয়। কিন্তু এর আগেই এলাকার লোকজন শনিবার বিকালে শাহাবুদ্দিনকে আটক করে। এলাকার লোকজনসুত্রে জানা গেছে, এদের সঙ্গে একটি পাচারকারী চক্রের প্রত্যক্ষ যোগাযোগ রয়েছে। এঘটনার পর থেকে এলাকায় স্কুলগামী শিক্ষার্থীর অভিভাবকের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। কলাপাড়া থানার ওসি (তদন্ত) মিজানুর রহমান শিকদার জানান, প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।