অর্থ ও বাণিজ্য

কেনা-বেচায় নতুন অনলাইন স্টোর পুনঃ ডট কম

PunohDotComঘর গোছাতে গেলে প্রায় সবারই বিরক্তির কারণ হয়ে দাড়ায় অব্যবহৃত বা অল্প ব্যবহৃত নানান সরঞ্জাম। হতে পারে তা পোশাক, জুতো বা ব্যাগ। এগুলো শুধুযে ঘরের একটা বড় অংশ দখল করে আছে তা নয়, পাশাপাশি স্থবির হয়ে আছে অর্থনীতির একটি উৎস। একে মুক্ত করে অর্থনীতির চাকা চলমান করা ও সামাজিক কল্যাণে কাজে লাগানোর উদ্যোগ নিয়েছে অনলাইন স্টোর পুনঃ ডট কম।

এই কাপড়গুলোর বেশিরভাগই অল্প ব্যবহৃত। কিছু আছে একেবারেই অব্যবহৃত। দেখতে নতুনের মতোই। দেখা গেল অব্যবহৃত বা অল্প ব্যবহৃত নানান রকম ব্যাগ, জুতো, জুয়েলারি এমনকি খেলনাও। ঘরে ঘরে পড়ে থাকা এধরণের পণ্যগুলোকে বিক্রি করার কাজটি করছে পুন ডট কম নামের এই অনলাইন বিপনিবিতানটি।
শুধু বিক্রিই শেষ কথা নয়, ঘরে কোনে আটকে থাকা অর্থনীতির এই উৎসগুলোকে একটি চক্রের মাধ্যমে চলমান রাখতে পুন ডট কমের আছে বিশেষ উদ্যোগ বলেন, পুন ডট কমের চেয়ারপার্সন ফারহানা রহমান।
অর্থ্যাৎ, কেউ কোনো পণ্য পুন ডট কমের মাধ্যমে বিক্রি করে বা এখান থেকে কোনো পণ্য কিনে সচল রাখতে পারছে দেশের অর্থনীতিকে। এতে করে একদিকে যেমন পণ্যটির পরিপূর্ণ ব্যবহার নিশ্চিত হচ্ছে, অন্যদিকে এর মূল্য কাজে লাগছে সামাজিক কল্যাণে। একারণেই পুন ডট কমকে বলা হচ্ছে একটি সামাজিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বলেন, পুন ডট কমের সিইও সৈয়দা গুলরূ হাসান।
পুনতে কেউ কোন পণ্য দিতে চাইলে ওয়েবসাইটের এই অংশে গিয়ে নিবন্ধন করতে হবে। এরপর পুন’র কর্মীরা বিক্রেতার কাছ থেকে সেই পণ্যটি নিয়ে আসে কার্যালয়ে। কিংবা কেউ চাইলে সরাসরি তা পুন’র কার্যালয়ে দিয়ে যেতে পারে। এরপর পণ্যটি ভালোভাবে যাচাই করে দেখা হয়, কোনো সমস্যা আছে কিনা বা এটি পুনরায় ব্যবহার যোগ্য কিনা।
বিক্রেতার সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে নির্ধারণ করা হয় পণ্যের মূল্য। এরপর পণ্যটির ছবি ও বিবরনিসহ তা আপলোড করা হয় পুন ডট কমে। আগ্রহি ক্রেতারা ওয়েবসাইটে ভিসা, মাস্টারকার্ড বা বিকাশের মাধ্যমে পণ্যটি কিনতে পারবে।
পণ্যটি ক্রেতার কাছে পৌছে দিতে আছে হোম ডেলিভারি সার্ভিস। আবার আগ্রহি ক্রেতা চাইলে পুন’র শো-রুমে এসে পণ্যটি দেখে-শুনেও কিনতে পারবে। এই সুযোগটি থাকায় এখন পুন’র ধানমন্ডি ৩২ নম্বর রোডের কার্যালয়ে উৎসুক ক্রেতাদের আনাগোনা লেগেই থাকে।
ভিন্নধর্মী এই উদ্যোগটি সামাজিক ব্যবসায় যোগ করেছে একটি নতুন মাত্রা। আবার এই প্লাটফর্মটির মাধ্যমে সমাজের স্বচ্ছল জনগন তাদের অবহেলিত সম্পদকে কাজে লাগিয়ে সুবিধাবঞ্চিত একটি বিরাট জনগোষ্ঠীর জীবনের মানোন্নয়েও রাখছে উল্লেখযোগ্য অবদান।