খুলনা জাতীয়

উন্মোক্ত হচ্ছে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে ঐতিহাসিক রিট্রেট শিরোমেনি

রিপন হোসেন, যশোর প্রতিনিধি :দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর বেনাপোল-পেট্টাপোল নোম্যান্সল্যান্ড সীমান্তে-উন্মোক্ত হচ্ছে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে ঐতিহাসিক রিট্রেট শিরোমেনি। বিজিবি-বিএসএফ আনুষ্টানিক ভাবে দু-দেশের যৌথ প্যারেড ও জাতীয় পতাকা উত্তোলন মহড়া পরিদর্শন করেছেন।

বৃহস্পতিবার ভারতীয় বিএসএফের আইপিএস শ্রী সন্তোষ মাহারার নের্তৃত্বে ডিজি রাজেশ গুপ্তা, ৪০ বিএসএফের সিও শ্রী এমকে জয়া, ডিআজি শ্রী তাহারী ও ষ্টাফ অফিসার মেজর দিপক ও সুদিপসহ ৬ সদস্যের দলকে নোম্যান্সল্যান্ডে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন বিজিবি কর্মকর্তারা। পরে আইসিপি ক্যাম্পে ভারতীয় প্রতিনিধি দল প্রধানকে গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়। ন্যোান্সল্যান্ডে দু’দেশের বিজিবি বিএসএফের যৌথ প্যারেড ও জাতীয় পতাকা উত্তোলন মহড়া প্রদশিত হয়। এসময় বাংলাদেশ বিজিবির যশোর রিজিউন্যাল কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার রবিউল ইবনে কামরুজ্জামান, খুলনা সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল ইকবাল,২৬ বিজিবির সিও মতিয়ার রহমান,বিজিবির জিটুসি মেজর আবুল কালাম উপস্তিত ছিলেন।

ভারত রিট্রিট শিরোমনি পাকিস্থান সীমান্তের আদলে আন্তর্জাতিক সীমান্ত চেকপোস্ট স্থলবন্দর বেনাপোল-পেট্টাপোল নোম্যান্সল্যান্ডে দু দেশের সীমান্ত রক্ষীদের জন্যে নির্মিত হবে সম্মিলিত প্যারেন্ড গ্রাউন্ড রিট্রেট শিরোমনি।

যশোর ২৬ বিজিরির সিও মতিয়ার রহমান বলেন, দু দেশের কৃষ্টি কালচার ও সোহার্দ সম্প্রতি আরো জোরদার হবে রিট্রেট শিরোমনি। এই রিট্রেট শিরোমনি একটি অনুষ্টান করা হবে। তারি ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশও ভারতের মধ্যে বিরাজমান যে সু সম্পর্ক আরো সমৃদ করার জন্য সরকারি পর্যায়ে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। দক্ষিণ পশ্চিম রিজিউন্যাল কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল রবিউল এবং ভারতের সাউথ ব্যাঙ্গল ফ্রনটিয়ার্সের আইজি এসে প্রস্ততিমূলক পর্ব দেখে গেলেন। এবং বিউগল বাজিয়ে আমরা পতাকা নামাই যেটা দিয়ে আমাদের দিনের কার্য্যক্রম সম্পূন্ন হয়েছে বলে মনি করি।