প্রধান খবর রাজনীতি

নির্বাচনে কোনো হস্তক্ষেপ হচ্ছে না: শেখ হাসিনা

2222222PID_6966--03নির্বাচনকালীন নির্দলীয় সরকার প্রতিষ্ঠায় বিরোধী দলের দাবি কার্যত প্রত্যাখ্যান করে শেখ হাসিনা আবারো বলেছেন, তার সরকার কোনো নির্বাচনে কোনো ধরনের হস্তক্ষেপ করছে না।তিনি মঙ্গলবার জাতীয় সংসদে বিরোধীদলীয় সংসদ সদস্য ও সাবেক স্পিকার মুহম্মদ জমিরউদ্দিন সরকারের এক বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় একথা বলেন।বিএনপির সংসদ সদস্য বগুড়ার নতুন পৌরসভা তালোড়ার নবনির্বাচিত পৌর মেয়রকে শপথের ব্যবস্থার জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চান।গত ৮ মে এই নির্বাচনে বিজয়ী বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী জালাল উদ্দিন বর্তমানে কারাগারে রয়েছেন।

শেখ হাসিনা নবনির্বাচিত মেয়র জালালের শপথের ব্যবস্থা করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে বলেন, “তালোড়া নতুন পৌরসভা। এখানে আওয়ামী লীগেরও প্রার্থী ছিল, বিএনপির জালাল উদ্দিন আওয়ামী লীগ প্রার্থীকে পরাজিত করে জয়ী হন।

“এটা প্রমাণিত হয়েছে, আমাদের সময় আমরা কোনো নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করি না। নির্বাচন কমিশন স্বাধীনভাবে নির্বাচন পরিচালনা করে।”

বর্তমান সরকারের মেয়াদে জাতীয় সংসদের উপনির্বাচন থেকে শুরু করে স্থানীয় সরকার পর্যায়ের বিভিন্ন নির্বাচনে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীদের জয়ী হওয়ার কথা উল্লেখ করেন তিনি।

সংবিধানের পঞ্চদশ সংশোধনে তত্ত্বাবধায়ক সরকার পদ্ধতি বিলুপ্ত হওয়ায় এখন আওয়ামী লীগ সরকারে থাকা অবস্থায়ই পরবর্তী জাতীয় নির্বাচন হবে।

তবে দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন নিরপেক্ষ হবে না দাবি করে নির্দলীয় সরকার পদ্ধতি পুনর্বহালের দাবি জানিয়ে আসছে বিরোধী দল।