চট্টগ্রাম

ভুল চিকিৎসায় মৃত্যুর অভিযোগে ফেনীতে তিন জনের ১০ বছর করে কারাদন্ড

নাজমুল হক শামিম, ফেনী প্রতিনিধি: ফেনীতে অপচিকিৎসায় মৃত্যুর অভিযোগে এক ভন্ড কবিরাজসহ তিনজনকে দশ বছর করে সশ্রম কারাদন্ড ও প্রত্যেককে দশ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরো তিন মাস করে কারাদন্ডের আদেশ প্রদান করা হয়। ফেনীর অতিরিক্ত দায়রা জজ আদালতের বিচারক মুহম্মদ হারুনুর রশিদ গতকাল সোমবার দন্ডবিধির ৩০৪ (বি)/১০৯ ধারায় তাদেরকে দোষী সাব্যস্থ করে এ রায় প্রদান করেন।

দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন- ছাগলনাইয়ার পূর্ব পাঠানগড় গ্রামের মো. বেলাল খন্দকার (কবিরাজ), তার সহযোগী একই উপজেলার বাশপাড়া নদীরকুল গ্রামের মো. নুর নবী প্রকাশ মিয়া ও একই গ্রামের মো. নাসির উদ্দিন। মামলার রায় ঘোষনার সময় আসামী মো. নাসির উদ্দিন উপস্থিত থাকলেও অন্য দুইজন পলাতক রয়েছে। তারা যেদিন আদালতে আত্মসমর্পন অথবা গ্রেপ্তার হবেন-সেদিন থেকে রায় কার্যকর হবে।

ফেনীর সহকারী সরকারী কৌশুলী দিজেন্দ্র কুমার কংশ বনিক ও মামলার এজাহার সুত্রে জানা যায়, ফুলগাজী উপজেলার ধলিয়া গ্রামের মৌলভী তোফাজ্জল হোসেনের মানসিক ভারসাম্যহীন ছেলে মো. জাকির হোসেনের (৪০) চিকিৎসার দায়িত্ব নেন মো. বেলাল খন্দকার। তাকে সুস্থ্য করার জন্য ১৫ হাজার টাকা কবিরাজকে দিতে হবে এমর্মে একটি মৌখিক চুক্তি হয়। ২০০৫ সালের ৭ ডিসেম্বর হতে ১২ ডিসেম্বর পর্যন্ত মো. জাকির হোসেনের হাতে ও পায়ে শিকল বাধা অবস্থায় তাকে পুকুরের পানিতে বারবার ডুবানো হয়। এক পর্যায়ে সে অচেতন হয়ে গেলে কবিরাজ তখন তাকে একটি কম্বল মুড়িয়ে ঘরের মধ্যে রেখে চলে যায়। এরপর সে মারা যায়। এ ঘটনায় মৌলভী তোফাজ্জল হোসেনের অপর ছেলে ফয়েজ উল্যাহ বাদী হয়ে আসামীদেও বিরুদ্ধে ফুলগাজী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।