লাইফ স্টাইল

বরফের তৈরি পানশালা ফিলিপাইনের ম্যানিলায় অবস্থিত

ফিলিপাইনের রাজধানী ম্যানিলায় দেখা মিলেছে সম্পূর্ণ বরফের তৈরি একটি বারের। ‘ইম্পেরিয়াল আইস বার’ নামের এই জায়াগাটিতে ঢুকতেই ছোঁয়া পাওয়া যায় এক অন্যরকম পরিবেশের। সাথে রয়েছে নানা ধরনের পানীয়র সুব্যবস্থা আর অনেকে মিলে আড্ডা দেয়ার নানা আয়োজন।

আইস বার’, নামটিতেই বোঝা যায় যার কথাই বলা হোক না কেন তার সাথে বরফের বেশ ভালোই সম্পর্ক রয়েছে। আর তাই ম্যানিলয়ায় এই মুহুর্তে সবচে আলোচিত মাইনাস পাঁচ ডিগ্রি তাপমাত্রার এই পানশালা।
ম্যানিলার সাধারণ তাপমাত্রা ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াস, তবে এই তাপমাত্রা থেকে ঠাণ্ডাটাই বেশি পছন্দ করেন অনেকে। সম্পূর্ণ বরফের তৈরি এমন একটি বারে আসা ক্রেতাদের সময় কাটানোর জন্য উপযুক্ত সব ব্যবস্থা রেখেছেন সংশ্লিষ্টরাও।
ইম্পেরিয়াল আইস বারের মালিক ও পরিচালক মিচ মালি বলেন “আমরা জানি যে মানুষ যখন বাইরে থেকে হঠাৎ করে পাঁচ ডিগ্রি তাপমাত্রায় আসেন, তখন শরীরে একটা নেতিবাচক প্রভাব পড়ে। তাই ফ্যাশনের দিকে লক্ষ্য রেখে এ তাপমাত্রায় সহনীয়তা বজায় রাখতে আমরা তাদের জন্য জ্যাকেট, গ্লভস আর টুপি রাখি।”
ম্যানিলার মতো গ্রীষ্মপ্রধান দেশে সম্পূর্ণ বরফের তৈরি বারটির তাপমাত্রা স্থায়ী রাখা এর মালিক ও পরিচালকের জন্য একটা চ্যালেঞ্জ বলে জানালেন তিনি।
মিচ মালি আরো বলেন “আসলে এই তাপমাত্রা রক্ষা করার জন্য আমরা গ্লাইসল পদ্ধতি ব্যবহার করি। এই কৌশলেই প্রচণ্ড গরমেও তাপমাত্রা মাইনাস রাখা সম্ভব।
গ্রীষ্মের দাবদাহ থেকে মাইনাস পাঁচ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা বিশিষ্ট আইস বারে তরুন তরুনীদের যাতায়াত একটু বেশি চোখে পড়ে।
সাধারণের চেয়ে একেবারে ভিন্ন পরিবেশ এখানে। এই পরিবর্তন উপভোগ করতেই মানুষ এখানে আসে। আইস বারের নাম শুনলে প্রথমেই মনে হয় ফিলিপিয়ানের মতো গ্রীষ্মপ্রধান দেশে এটা কি করে সম্ভব? যেখানে এক টুকরো বরফ সহজেই গলে যায় সেখানে বরফের তৈরি আস্ত বার থাকতে পারে শুনলেই আর বসে থাকতে ইচ্ছে করে না।