আন্তর্জাতিক

নওয়াজ প্রধানমন্ত্রী মনোনীত

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক : পাকিস্তানের জাতীয় নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জনকারী পার্টি পিএমএল-এনের সংসদীয় দলের সদস্যদের মনোয়নের মধ্য দিয়ে তৃতীয়বারের মতো পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হল নওয়াজ শরীফের। শনিবার পাকিস্তানের দৈনিক ডনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ইসলামাবাদে পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজের (পিএমএল-এন) সংসদীয় দলের বৈঠকে চৌধুরী নিসার আলী খান নামের এক এমপি প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নওয়াজের নাম প্রস্তাব করলে তা পাশ হয়ে যায়। এই বৈঠকে নতুন ¯িপকার ও ডেপুটি ¯িপকারও মনোনীত হয়। এর আগে পার্লামেন্টে শপথ নেন নবনির্বাচিত এমপিরা, যার মধ্য দিয়ে দেশটির ৬৬ বছরে ইতিহাসে প্রথমবারের মতো গণতান্ত্রিকভাবে ক্ষমতা হস্তান্তরের ঘটনা ঘটে। বিদায়ী ¯িপকার ফাহমিদা মির্জা সংসদ সদস্যদের শপথ পড়ান। এরপর আগামী সোমবার পর্যন্ত সংসদের কার্যাক্রম মুলতবি করা হয়। ওই দিন নতুন ¯িপকার ও ডেপুটি ¯িপকার নির্বাচনের কথা রয়েছে। গত ১১ মের নির্বাচনে পার্লামেন্টের ৩৪২ আসনের মধ্যে ১৭৬ আসনে জয় পায় নওয়াজের দল পিএমএল-এন, যেখানে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি) পায় মাত্র ৩৯ আসন। আর তৃতীয় অবস্থানে আসে সাবেক ক্রিকেট তারকা ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ, নির্বাচনে যারা ৩৫ আসনে জয় পায়।
কয়েকজন স্বতন্ত্র এমপিকে নিয়ে পিএমএল-এন নতুন সরকার গঠন করবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। নতুন সরকারে প্রধানমন্ত্রীর জন্য আগামী মঙ্গলবার দুপুর ২টা নাগাদ ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির সচিবের কাছে প্রার্থীদের মনোয়নপত্র জমা দিতে হবে। আর প্রধানমন্ত্রী নির্বাচন হবে বুধবার, ওই দিনই আনুষ্ঠানিকভাবে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নওয়াজের নাম ঘোষণা হতে পারে।
নব্বইয়ের দশকে দুই দফায় পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেন নওয়াজ শরীফ। সর্বশেষ ১৯৯৯ সালে এক সামরিক অভ্যুত্থানে ক্ষমতাচ্যুৎ হয়ে নির্বাসিত হন তিনি। ৬৩ বছর বয়সী নওয়াজ আগামী সপ্তাহেই আবারো দেশটির প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিতে পারেন।
শুক্রবারের বৈঠকে দলীয় সাংসদদের দায়িত্ব স¤পর্কে সতর্ক করেন নওয়াজ। এছাড়া যারা পাকিস্তানের জাতীয় স¤পদ বিনষ্ট করেছে তাদের জবাবদিহির আওতায় আনার ঘোষণা দেন তিনি।