জাতীয়

বিশ্বজিৎ হত্যায় ২১ আসামির বিরুদ্ধে চার্জগঠন

আদালত প্রতিবেদক: পুরান ঢাকায় ভিক্টোরিয়া পার্কের কাছে দর্জি দোকানি বিশ্বজিৎ দাশকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ২১ আসামির বিরুদ্ধে চার্জগঠন করেছে আদালত।

রোববার মামলার চার্জ শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর দায়রা জজ মো. জহুরুল হক এ চার্জগঠন করেন।আগামি ১৩ জুন সাক্ষ্য গ্রহনের জন্য দিন ধার্য করা হয়েছে। এ মামলার সাক্ষি সংখ্যা ৬০ জন।চার্জ শুনানির পর আদালতে উপস্থিত আসামিরা নিজেদের নির্দোষ দাবী করেন।গত ৫ মার্চ বিশ্বজিত হত্যাকান্ডের ২ মাস ২৪ দিন পর ২১ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশীট দাখিল করা হয়।অভিযুক্তদের মধ্যে ৮ জন জেলহাজতে আছেন। পলাতক আছেন ১৩ জন। পলাতক আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারী করা হয়েছে।গত ২৬ মে মানিকগঞ্জ থেকে এ মামলার আসামি গোলাম মোস্তফাকে গ্রেফতার করা হলেও তাকে আদালতে হাজির করা হয়নি।

চার্জশিটভূক্ত ২১ আসামী হলেন, ছাত্রলীগ ক্যাডার রফিকুল ইসলাম শাকিল (চাপাতি শাকিল), মাহফুজুর রহমান নাহিদ, এমদাদুল হক এমদাদ, জিএম রাশেদুজ্জামান শাওন, এইচ এম কিবরিয়া, কাইউম মিয়া টিপু, সাইফুল ইসলাম, রাজন তালুকদার, খন্দকার মো. ইউনুস আলী, আজিজুল হক, তারিক বিন জোহর তমাল, গোলাম মোস্তফা, আলাউদ্দিন, ওবায়দুর কাদের তাহসিন, ইমরান হোসেন ইমরান, আজিজুর রহমান আজিজ, মীর মো. নূরে আলম লিমন, আল-আমিন শেখ, রফিকুল ইসলাম, মনিরুল হক পাভেল, কামরুল হাসান ও মোশারফ হোসেন।

জেলহাজতে থাকা ৮ জনের মধ্যে শাকিল, নাহিদ, এমদাদ ও শাওন আদালতে স্বীকারোক্তি করেছেন।

এছাড়া অভিযোগ প্রমানিত না হওয়ায় মামুন অর রশিদ, ফারুক হোসেন, কাজী নাহিদুজ্জামান তুহিন ও মোসলেহউদ্দীন মোসলেমকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।

গত ৯ ডিসেম্বর অবরোধ কর্মসূচি চলাকালে পুরান ঢাকার ভিক্টোরিয়া পার্কের সামনে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের ক্যাডারদের হাতে নির্মমভাবে নিহত হন নিরীহ দর্জি বিশ্বজিৎ দাস।