প্রধান খবর রাজনীতি

কোন অনির্বাচিত সরকারের কাছে ক্ষমতা হ¯তাšতর করা হবেনা -মোহাম্মদ নাসিম

খাইরুল ইসলাম বাসিদ, পাবনা: সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, বিরোধী দল বাজেট অধিবেশনে এসে তাদের দাবির কথা বললে আগামী নির্বাচন নিয়ে আলোচনা হতে পারে।আলোচনার মধ্য দিয়ে একটি অবাধ সুষ্টু নির্বাচনের সিদ্ধান্ত আসবে। তবে কোন অনির্বাচিত সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করা হবেনা। বাংলাদেশে আর কোন দিন তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা ফিরে আসবে না। দেশের সর্বোচ্চ আদালতের রায়ে ইতোমধ্যে এই ব্যবস্থা বাতিল হয়ে গেছে। তাই তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা ফিরিয়ে আনতে হলে সুপ্রীম কোর্ট বাতিল করতে হবে। আরও বাতিল করতে হবে দেশের পার্লামেন্টকে।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনা সরকারের আমলে ইউনিয়ন পরিষদ, পৌরসভাসহ সাড়ে ৫ হাজার প্রতিষ্ঠানে নির্বাচন হয়েছে। কোনটাতে আওয়ামীলীগ জিতেছে আবার কোনটাতে হেরেছে। কিন্তু নির্বাচন নিয়ে কেউ কারচুপির কথা বলতে পারেনি। তাই আগামী বছরের জানুয়ারি মাসে নির্বাচন কমিশনের অধীনে সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই নির্বাচনে সকল প্রশাসনিক ক্ষমতা থাকবে নির্বাচন কমিশনের অধীনে। শেখ হাসিনা থাকবেন শুধুমাত্র দাফতরিক প্রধান হিসেবে।
গতকাল রোববার নিজাম উদ্দিন আজগর আলী কলেজ মাঠে সুজানগর উপজেলা আওয়ামীলীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির ভাষণে সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোহাম্মদ নাসিম এ কথা বলেন।
সুজানগর উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আবুল কাশেমের সভাপতিত্বে সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু, রাজশাহী বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি শামসুর রহমান শরীফ ডিলু এমপি, গোলাম ফারূক খন্দকার প্রিন্স এমপি, পাবনা জেলা পরিষদ প্রশাসক ও জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহসভাপতি এম সাইদুল হক চুন্নু, সহসভাপতি রেজাউল রহিম লাল, তোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী, চন্দন কুমার চক্রবর্তী, পিপি অ্যাডভোকেট বেলায়েত আলী বিল্লু, যুবলীগ প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির রানা, অধ্যাপক আমিরুল ইসলাম, সোহেল হাসান শাহীন, রকিব হাসান টিপু প্রমুখ।
বিকেলের অধিবেশনে কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়। আবুল কাশেমকে সভাপতি ও আব্দুল ওহাব কে সুজানগর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়।