আন্তর্জাতিক জাতীয় ঢাকা প্রধান খবর

মমতা কাল আসছেন

 আন্তর্জাতিক ডেস্ক : তিন দিনের সরকারি সফরে বৃহস্পতিবার বাংলাদেশে আসছেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।বাংলাদেশ সফর নিয়ে বুধবার মমতা বলেন, ‘২১ শে ফেব্রুয়ারি ভাষা দিবসে বাংলাদেশ সফরে থাকব, এজন্য আমি গর্ব বোধ করছি।’ তিনি আরো বলেন, ‘যদিও এর আগে আমি বাংলাদেশ সফর করেছি, তবে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে এই প্রথম দেশটিতে সফরে যাচ্ছি।’ ২০১১ সালে ভারতের সে সময়ের প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের সঙ্গে বাংলাদেশ সফরে আসার কথা ছিল মমতার। কিন্তু তিস্তা চুক্তি নিয়ে বিরোধিতার কারণে শেষ মুহূর্তে তিনি সফর বাতিল করেন। মূলত তার বিরোধিতার কারণেই ঝুলে ছিল ভারত-বাংলাদেশের মধ্যকার তিস্তা চুক্তি ও স্থলসীমান্ত চুক্তি। বিজেপির সরকারের নেওয়া সবশেষ পদক্ষেপে অবশ্য সায় দিয়েছেন মমতা। এর ফলে দুটি চুক্তি সফল হওয়ার দ্বারপ্রান্তে। এনডিটিভি অনলাইনের তথ্যমতে, জানুয়ারিতে বাংলাদেশ সফরে জন্য মমতাকে আমন্ত্রণ জানায় বাংলাদেশ সরকার। তিনি সে আমন্ত্রণ সাদরে গ্রহণ করেন। পূর্বনির্ধারিত সূচি অনুযায়ী ১৯ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশে আসছেন তিনি।

সফরের সময় রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন মমতা। তার এই সফরের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যকার সম্পর্ক আরো সুদৃঢ় হবে বলে আশা করা হচ্ছে। বিশেষ করে, ঝুলে থাকা চুক্তিগুলো দ্রুত সম্পন্ন হওয়ার পথ সুগম হবে।

সম্প্রতি ভারত সফরে যান রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ এবং অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। বাংলাদেশের একটি সংসদীয় প্রতিনিধিদলও ভারত সফর করেছে। সফরের সময় তারা মুখ্যমন্ত্রী মমতার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন এবং বাংলাদেশ সফরের জন্য তাকে আমন্ত্রণ জানান।

বাংলাদেশ সফরের জন্য কলকাতায় বাংলাদেশ হাইকমিশনের ডেপুটি হাইকমিশনার ৬ জানুয়ারি মুখ্যমন্ত্রী মমতার কাছে আনুষ্ঠানিক আমন্ত্রণপত্র দিয়ে আসেন।

১৯৯৮ সালে আওয়ামী লীগের সুবর্ণজয়ন্তীতে বাংলাদেশে আসেন মমতা। সে সময়ও বাংলাদেশে প্রধানমন্ত্রী ছিলেন শেখ হাসিনা।

উল্লেখ্য, মমতার সঙ্গে আসছেন সংস্কৃতি, সাহিত্য, বিনোদন ও গণমাধ্যমের এক ঝাঁক তারকা।