জাতীয় ঢাকা প্রধান খবর সারাদেশ

মামলা আপন গতিতে চলবে- প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

 আছাদুজ্জামান,হটনিউজ২৪বিডি.কম, ঢাকা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘নাশকতাকারীদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। বিচার করার জন্য যথেষ্ট আইন আছে। মামলা যাতে দ্রুত নিষ্পত্তি হয়, সে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। যারা মানুষ খুনের মতো জঘন্য কাজ করে, তাদের শাস্তি হবেই।’ আজ বুধবার জাতীয় সংসদে গোলাম দস্তগীর গাজীর সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘মামলা হয়েছে, মামলা আপন গতিতে চলবে। খুনের দায় তিনি এড়াতে পারবেন না। এ ধরনের অপরাধ বিনা বিচারে যেতে পারে না। অন্যায় বরদাশত করা হবে না। এর বিচার হবেই। বিচার না হলে দেশ ধ্বংসের দিকে যাবে।’ শেখ হাসিনা বলেন, ‘অবৈধ ক্ষমতা দখলকারীদের হাতে বিএনপির জন্ম। হাইকোর্টের রায় অনুযায়ী বিএনপি দল হিসেবে থাকে না। কিন্তু ইসির নিবন্ধিত দল হিসেবে তারা এখনো রাজনীতি করছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘বিএনপি নির্বাচনের আগে বাস, ট্রাক, ট্রেনে আগুন দিয়েছিল। এখন এসবের পাশাপাশি মানুষ পুড়িয়ে মারছে, হরতাল দিচ্ছে। হরতাল কোথায় হচ্ছে? রাস্তায় যানজট। তবুও মানুষ আতঙ্কে। কারণ তিনি মানুষ পুড়িয়ে মারছেন। তিনি এখন মানুষ মারার মোহে মোহিত, বিভোর। হুকুমের পর হুকুম দিয়ে যাচ্ছেন। একের পর এক বীভৎস ঘটনা ঘটাচ্ছেন।’ বিশেষ আদালত করে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে কি না—শামীম ওসমানের এ প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘কুকুর কামড় দিলে আমরা তো কুকুরকে কামড় দিতে পারি না।’ পীর ফজলুর রহমানের সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘হিযবুত তাহরীরকে অনেক আগেই নিষিদ্ধ করা হয়েছে। যে কারণে ২০০৯ সাল থেকে এখন পর্যন্ত তেমন কিছু করতে পারেনি। এখন খালেদা জিয়ার কর্মকাণ্ডে হিযবুত তাহরীরের তৎপরতা বেড়েছে। খালেদা-হিযবুত তাহরীর একই সূত্রে গাঁথা। ১১ ফেব্রুয়ারি ডেইলি স্টার-এ তৃতীয় পৃষ্ঠায় হিযবুত তাহরীরের একটি পোস্টার বিশাল করে ছাপানো হয়েছে। পোস্টারটি বাংলা মটরের এক কোনায় সাঁটানো ছিল, যা কেউ পড়তই না। পজিটিভ অথবা নেগেটিভ, যেভাবে লিখুক না কেন, এটা বিশাল আকারে ছাপানো হিযবুত-তাহরীরকে মদদ দেওয়ার শামিল। যারা পোস্টার ছাপিয়ে মদদ দিচ্ছে, তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে।