অর্থ ও বাণিজ্য প্রধান খবর

ওয়ালটনের কর্মকান্ড প্রমাণ করে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে- শিল্পমন্ত্রী

amu photo in walton 10নিজস্ব প্রতিবেদক : শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেছেন, ওয়ালটনের কর্মকান্ড প্রমাণ করে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। তারা যন্ত্রাংশ থেকে শুরু করে ইলেকট্রনিক্স ও ইলেকট্রিক্যাল পণ্যের সবকিছুই উৎপাদন করছে। ব্যাসিক ইন্ডাস্ট্রি গড়ে তুলেছে ওয়ালটন। এই ধারা অব্যাহত থাকলে দেশ এগিয়ে যাবেই।
মন্ত্রী আজ শুক্রবার গাজীপুরের চন্দ্রায় ওয়ালটন কারখানা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন। এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটন হাইটেক ইন্ডাস্ট্র্রিজের চেয়ারম্যান এসএম শামসুল আলম, পরিচালক এসএম রেজাউল আলম, অপারেটিভ ডিরেক্টর উদয় হাকিম, ওয়ালটন মাইক্রোটেকের এডমিন ও এইচআর প্রধান লে. কর্নেল (অব.) শাহাদাত আলম, ওয়ালটনের ফার্স্ট সিনিয়র এডিশনাল ডিরেক্টর লে. কর্নেল (অব.) আব্দুল কাদের, অতিরিক্ত পরিচালক আলমগীর আলম সরকার, ফার্স্ট সিনিয়র ডেপুটি ডিরেক্টর মোহাম্মদ ইউসুফ আলী, মিডিয়া উপদেষ্টা এনায়েত ফেরদৌস, মন্ত্রীর সহকারি একান্ত সচিব এসএম মাহমুদ কিরন প্রমূখ।
শিল্পমন্ত্রী বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করার টার্গেট আছে আমাদের। ওয়ালটন যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে, তারা যেভাবে যন্ত্রাংশ থেকে শুরু করে ফ্র্রিজ, টিভি, মোটরসাইকেল, এসি তৈরি করছে তাতে বলা যায়- বাংলাদেশ তার কাঙ্খিত লক্ষে পৌছবেই। তিনি বলেন, বিদেশী বিনিয়োগকারীদের ওয়ালটন কারখানা পরিদর্শন করা উচিত। তাহলে তারা বুঝবে যে বাংলাদেশ এখন বিনিয়োগের উত্তম স্থান।
amu photo in walton 9দেশীয় শিল্প বিকাশে সরকারের সব ধরনের উদ্যোগ অব্যাহত থাকবে উল্লেখ করে আমির হোসেন আমু আরো বলেন- মোবাইল ফোন, মোটরগাড়ি থেকে শুরু করে সম্ভাব্য অন্যান্য শিল্পে উদ্যোক্তারা এগিয়ে আসলে পলিসিগত সব বাঁধা পর্যায়ক্রমে দূর করা হবে।
এর আগে শুক্রবার দুপুরে ওয়ালটন কারখানা প্রাঙ্গণে এসে পৌছলে শিল্পমন্ত্রীকে ফুল দিয়ে স্বাগত জানান ওয়ালটনের উর্র্ধতন কর্মকর্তারা।
মন্ত্রী প্রথমে ওয়ালটন কারখানার ওপর নির্মিত প্রামাণ্যচিত্র উপভোগ করেন। এরপর শিল্পমন্ত্রী ওয়ালটনের বিভিন্ন উৎপাদন ইউনিট ঘুরে দেখেন। তিনি ফ্রিজ, টেলিভিশন, এয়ারকন্ডিশনার, মোটরসাইকেল ইত্যাদি পণ্যের উৎপাদন প্রক্রিয়া পর্যবেক্ষণ করছেন।
পরিদর্শন শেষে মন্ত্রী নতুন মডেলের (২৫৪ লিটার বা ১৫ সিএফটি, মডেলের নাম ডব্লিউটুডি-টুইফোর-ড২উ-২ঊ৪) একটি ফ্রিজের বিপণন কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।
এ প্রসঙ্গে ওয়ালটনের অপারেটিভ ডিরেক্টর (ক্রিয়েটিভ এন্ড পাবলিকেশন) উদয় হাকিম বলেন, শিল্প মন্ত্রী বাংলাদেশে শিল্প অগ্রগতির একজন অভিভাবক। তাঁর এ পরিদর্শন ওয়ালটনের জন্য বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ। ধীরে ধীরে বিশ্ববাজারে বাংলাদেশি ব্র্যান্ড হিসেবে প্রতিষ্ঠা পাচ্ছে ওয়ালটন। এ সময় শিল্পমন্ত্রীর পরিদর্শন ওয়ালটন সংশ্লিষ্টদের উৎসাহিত করবে।