অর্থ ও বাণিজ্য

‘প্রবৃদ্ধি ধরে রাখতে প্রয়োজন স্থিতিশীল রাজনৈতিক অবস্থা’

Ataurহট নিউজ ডেস্ক : বিনিয়োগ বৃদ্ধি করে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির ধারা অব্যাহত রাখতে স্থিতিশীল রাজনৈতিক পরিবেশ প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেছেন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমান।

এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলের সেরা গভর্নর হিসেবে নির্বাচিত হওয়ায় আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন। এসময় তিনি আরো বলেন, ব্যাংক খাতের অনিয়মের ক্ষেত্রে কোন ধরণের ছাড় দেয়া হবে না।

ক্ষুদ্র, মাঝারি এবং নারী উদ্যোক্তাদের জন্য সহজ শর্তে ঋণ দেয়া, পরিবেশ বান্ধব শিল্পে বিনিয়োগ কিংবা সামাজিক খাতে ব্যাংকের ভূমিকা বাড়িয়ে সবার অংশগ্রহণমূলক একটি আর্থিক কাঠামো গড়ে তুলতে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ভূমিকা দেশে বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে। বিশ্বমন্দা এবং মূল্যস্ফীতির চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বিভিন্ন সময়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের নেয়া নীতি গ্রহণের সাফল্যে পুরস্কার এসেছে জাতিসংঘ, বিশ্ব-স্বাস্থ্য সংস্থা থেকেও। বিশ্ব প্রবৃদ্ধির কেন্দ্রবিন্দু এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগর অঞ্চলের সেরা গভর্নর হিসেবে নির্বাচিত হওয়া তেমনই আরেকটি অর্জন বলে মনে করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের চেঞ্জ ম্যানেজমেন্ট অ্যাডভাইজার আল্লাহ মালিক কাজেমী বলেন, ‘কেন্দ্রীয় ব্যাংকিংয়ের নতুন প্যারাডাইম, এটাকে শিফট এনে সেটাকে প্রমাণ করার কাজে বিশ্বের গুটি কয়েক পথিকৃতদের মধ্যে তিনি অন্যতম।’

ব্যাংকখাত খেলাপি ঋণের নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে, এছাড়া নানা রকম আর্থিক জালিয়াতির ঘটনায় সরকারি বেসরকারি অনেক ব্যাংকের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে। এটা স্বীকার করেই গভর্নর বলেন প্রযুক্তির ব্যবহারে কেন্দ্রীয় ব্যাংক তার তদারকি সক্ষমতা বৃদ্ধি করছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমান বলেন, ‘বাংলাদেশ এই অঞ্চলের মধ্যে সবচেয়ে স্থিতিশীল অর্থনীতির দেশ। আশা করি সারাদেশে শান্তি বিরাজ করবে এবং এই শান্তির সুফল বিনিয়োগকারীরা পাবে। সকল ব্যাংকারদের কাছে আমাদের স্পষ্ট বার্তা, এখন থেকে গুনমানের ঋণ দিব এবং সেই ঋণ আমরা ঠিকমতো আদায় করব।’

মোবাইল ব্যাংকিং এর পরিসর বাড়ানো এবং স্কুল শিক্ষার্থী, শ্রমজীবী প্রান্তিক মানুষের কাছে ব্যাংকের সেবা পৌঁছে দেয়ার মত নতুন নতুন উদ্যোগ ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে বলে জানান গভর্নর।