প্রধান খবর রাজনীতি হটনিউজ স্পেশাল

যাত্রাপথেই হোচট খেল বিএনপি!

7

নূরে আলম জীবন,হটনিউজ২৪বিডি.কম: দেশের প্রধান দুই রাজনৈতিক দল মুখোমুখি অবস্থায় এসে দাঁড়িয়েছে। আতঙ্কে মানুষ, থমকে আছে বাতাস। বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া দুর্নীতি মামলায় বকশী বাজার অস্থায়ী আদালতে হাজিরা দিতে যাওয়ার আগেই ছাত্রদলসহ বিএনপি’র হাজার হাজার নেতাকর্মী সেখানে উপস্থিত হয় আর তাদের উপস্থিতির এক পর্যায় ছাত্রলীগের দু’একশো নেতাকর্মী’র ধাওয়ায় পালিয়ে যায়। আহত হয় বিএনপি’র প্রায় অর্ধশত নেতাকর্মী। কয়েক দিনের আলোচনার শিরোনাম ছিল রাজপথে বিএনপি’র আন্দোলন। আন্দোলনের প্রস্তুতিতেই বিএনপির পিছুটান। অনেকটা পুরনো হুংকার, ন্যাড়ী বিড়ালের কথার মত বলে মনে করেন রাজনৈতিক বিশ্লেষক গণ।

বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, অবৈধ্য সরকারের পায়ের নিচের মাটি সড়ে গেছে। জনগণ মুখ ফিড়িয়ে নিয়েছে অনেক আগেই এ সরকারের থেকে। ছাত্রলীগ, যুবলীগের সন্ত্রাসী ও আইন শৃংখলার পেটুয়া বাহিনী দিয়ে স্বৈরাশাষকের ভূমিকায় ক্ষমতা আকড়ে আছে।

তিনি বলেন, আমরা শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির মাধ্যমে সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে চাই। কিন্তু সরকারের সন্ত্রাসী বাহিনী গায়ের উপর পরে ঝগড়া করতে চায়।

ফখরুল আরো বলেন, এসরকার দেশকে বিক্রি করে দিচ্ছে।
ছাত্রলীগ,যুবলীগ দেশে দুর্নীতির মহা তান্ডব চালাচ্ছে। আর অন্য দিকে বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিচ্ছে। তারেক রহমান নামক জ্বরে ভুগছে সরকার। তাই অন্ধকারে ঢিল ছোরার মত তারেক রহমানের বিরুদ্ধে একের পর এক মামলা দিচ্ছে।

বুধবার সন্ধ্যায় ফেসবুকে এক স্ট্যাটাসে ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকী নাজমুল আলম হুমকি দিয়ে বলেছেন, ন্যাড়ী কুত্তার মতো পিটামু বিএনপির বড় নেতাদের।তিনদিনের মধ্যে ছবি বিশ্বাসের উপর হামলার জবাব দিব। ডাক্তার বলছিলো আরও কয়টাদিন থাকতে আর থাকতে পারলাম না কুকুরদের ঘেউ ঘেউ এর কারণে।

ছাত্রলীগ সম্পাদকের এ বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় ছাত্রদলের সভাপতি রাজীব আহসান বলেন, ছাত্রলীগের রুচি, ব্যক্তিত্ব ও নের্তৃত্বের গুণ কেমন তা নাজমুল আলমের ভাষা থেকে প্রমাণ হয়। ভবিষ্যতে কে থাকবে আর কে থাকবে না তা সময়ই বলে দেবে। আমরা কাউকে আর ছাড় দেব না।