অপরাধ জাতীয় নেত্রকোণা

নেত্রকোনা বিদ্যুৎ অফিস জর্জরিত নানা অনিয়ম-দুর্নীতিতে

21

পাপ্পু মজুমদার,হটনিউজ২৪বিডি.কম,নেত্রকোনা প্রতিনিধি: নেত্রকোনা বিদ্যুৎ অফিসে (পিডিবি) কর্মকর্তা কর্মচারীদের যোগসাজোশে প্রতিনিয়ত বেড়ে চলেছে লাগামহীনভাবে বেড়ে চলেছে অনিয়ম-দুর্নীতি।

সরেজমিনে অনুসন্ধান এবং বিশ্বস্ত সুত্রে জানা যায়, ভূয়া ম্যাজিষ্ট্যাট সেজে প্রতারণা, অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ, সিল ও সই জাল, তার চুরি, অনুমোদনহীন ভাবে বিদ্যুতের খূটি সহ নানা অনিয়ম চলছে নেত্রকোনা বিদ্যুৎ অফিসে অনেকটা ওপেন সিক্রেট ভাবেই।

এসবের নেপথ্যে থাকেন নির্বাহী প্রকৌশলী থেকে শুরু করে লাইনম্যান পর্যন্ত। সাথে তালিকাভূক্ত ঠিকাদার সমন্বয়ে একটি সিন্ডিকেট। সিন্ডিকেটটি যখনই যে দল ক্ষমতায় থাকে সে দলের নাম ভাঙ্গিয়ে অবৈধভাবে সাধারন গ্রাহককে ঠকিয়ে হাতিয়ে নিচ্ছে কোটি কোটি টাকা।

সাম্প্রতিক সময়ে সদর উপজেলার মৌগাতী ইউনিয়নের ফাইচকা-দূর্গাপুর এলাকা থেকে বিদ্যুতের খুটি দেওয়ার নাম করে ১৬৫ টি পরিবারের কাছ থেকে ইউপি চেয়ারম্যান মাহবুবুল ইসলাম কমলের মাধ্যমে প্রায় দশ লক্ষ টাকা আদায় করে এই সিন্ডিকেট।

পরবর্তীতে বিভিন্ন পর্যায় থেকে নানা চাপের মুখে ১২ টি খূটিও স্থাপন করে তারা। বিদ্যুৎ অফিস একবার বলছে ওই এলাকায় কোন খূটি নেই, আরেকবার বলছে তালিকাভূক্তির জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠানো হয়েছে।

জানা যায়, খূটি স্থাপন করা হয় বিদ্যুৎ অফিসের টেন্ডারের মাধ্যমে। কিন্তু এর জন্য গ্রাহকের কাছ থেকে টাকা নেওয়ার অনুমতি কি বিদ্যুৎ অফিসের দেয়ার কোন প্রকার এখতিয়ার আছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে নেত্রকোনা বিদ্যুৎ অফিসের (পিডিবি) নির্বাহী প্রকৌশলী হাবিবুর রহমান জানান, আমার অফিসের কোন লোক টাকা নিলে বলেন, অন্য কেউ টাকা নিলে সেটা আমাদের দেখার বিষয় না।

শুধুমাত্র ১২ টি খূটি ক্ষমতাসীন দলের একজন নেতার সুপারিশে দেয়া হয়েছে। এরকম সুপারিশে রাখতেই হয়, এটাই স্বাভাবিক।

###নূরে আলম জীবন###