বিনোদন

ঠাকুরঘরে আমি তো…

3

হনিউ২৪বিডি.কম,ডেস্ক : রণবীর কাপুর আর ক্যাটরিনার বিয়ে নিয়ে দিস্তা দিস্তা নিউজপ্রিন্ট খরচ হয়েছে৷ কিন্ত্ত সেটা ঠিক কবে, কারও জানা নেই৷ ক্যাট-রণের মতো আরও এক ‘হট কাপল’-এর সাতপাক নাকি আসন্ন৷ এদের নিয়েও গণ্ডাগণ্ডা নিউজপ্রিন্ট আর টিভি চ্যানেলের এয়ার টাইম খরচ হয়েছে৷ কিন্ত্ত নিশ্চিতভাবে কোনো কিছু জানা যায়নি এতদিন৷ কিন্ত্ত নানা সময়ে বিরাট কোহলি আর আনুশকা শর্মার ‘না’ বলার বহর দেখে মনে পড়ে যায় বাংলায় একটা ঘরোয়া প্রবাদ-‘ঠাকুর ঘরে কে? আমি তো কলা খাইনি’! অর্থাৎ অস্বীকার করা ধুম দেখেই মনে হয় ‘ডাল মে কুছ কালা হ্যয়’৷

ভারতীয় ক্রিকেট দলের ভবিষ্যত ক্যাপটেন বিরাট আর অভিনেত্রী আনুশকা শর্মার মধ্যে যে প্রেম চলছে, এই গুজব অনেক দিনের৷ কী আশ্চর্য, সংবাদ মাধ্যমে যখন এই খবর দিনের আলো দেখল, তখন তাদের থেকে ‘না’ ছাড়া অন্য কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি৷ তারপর একসময় তারা ধরা পড়লেন পাপারাত্জিেদের ক্যামেরায়৷ তখন ঢোক স্বীকার করে নিলেন যে তারা ‘ডেট’ করছেন৷

এরপর আরব সাগর দিয়ে অনেক পানি গড়িয়েছে৷ জানা গিয়েছে, বিদেশের ক্রিকেট সফর সেরে বিমানবন্দর থেকে সোজা আনুশকার ফ্ল্যাটে গিয়ে উঠেছেন বিরাট৷ কিন্ত্ত বিয়েটিয়ের কথা উঠলে মাছি তাড়ানোর মতো সব কিছু উড়িয়ে দিয়েছেন এই ‘হট কাপল’৷
কিন্ত্ত আন্ধেরিতে আনুশকার পঞ্চবটিকা অ্যাপার্টমেন্টে বিরাট কোহলির যাওয়া আর থাকায় কিন্ত্ত বিন্দুমাত্র ছেদ পড়েনি৷ তবে বর্তমানে আনুশকা আর বিরাট নাকি আরেকটু প্রাইভেট স্পেস চাইছেন৷ কারণ একটাই, পঞ্চবটিকায় মাঝেমধ্যেই আনুশকার বাবা-মা এসে থাকেন৷ বাবা-মায়ের চোখের সামনে বিরাটকে নিয়ে থাকতে নাকি আনুশকার কিছুটা অস্বস্তি রয়েছে৷ বিরাটও সেভাবে স্বচ্ছন্দ হতে পারেন না৷ আর সেই কারণেই তারা একটি ‘লাভ নেস্ট’-এর সন্ধানে রয়েছেন৷

এই ‘লাভ নেস্ট’-এর ধারণাটা মূলত ছড়িয়েছে মার্কিন মুলুক থেকে৷ পরিবারের অন্যান্যদের চোখ এড়িয়ে কোনো যুগল মাঝেমধ্যে যেখানে অতরঙ্গ সময় কাটায়, সেটাই হলো লাভনেস্ট৷ আর সেই লাভনেস্ট হিসেবে পঞ্চবটিকা অ্যাপার্টমেন্টের অনতিদূরেই নাকি একটি ফ্ল্যাট খুঁজছেন বিরাট-আনুশকা৷ স্থানীয় এক প্রপার্টি ব্রোকারই নাম গোপন রেখে এই কথা জানিয়েছেন৷ বিরাট-আনুশকার পুরোপুরি নিজেদের এই নতুন ফ্ল্যাট খোঁজা বা আরও সময় একসঙ্গে থাকার ইঙ্গিত কি বিয়ের দিকেই? ইন্ডাস্ট্রির একটি অংশ কিন্ত্ত সেইরকমই ভাবছে! – ওয়েবসাইট।