রাজনীতি

সংযত হয়ে কথা বলুন প্রধানমন্ত্রীকে ফখরুল

1

হনিউ২৪বিডি.কম,ঢাকা: বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান সর্ম্পকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্যের কঠোর সমালোচনা করেছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, বিএনপি কিংবা তারেক রহমান নয়, আপনার, আপনাদের  সংযত হয়ে কথা বলা উচিত।

বৃহস্পতিবার সকালে ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশন মিলনায়তনে ৯০’র ডাকসুর সাবেক নেতৃবৃন্দ ও সর্বদলীয় ছাত্রঐক্যর নেতৃবৃন্দের আয়োজনে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের চলমান সংগ্রামে বিজয় ছিনিয়ে আনার লক্ষ্যে স্বৈরাচার বিরোধী গণতন্ত্রের সংগ্রামে সাবেক ও বর্তমান ছাত্র নেতৃবৃন্দের কনভেনশনে তিনি এ কথা বলেন ।

তিনি বলেন, আপনারা এমন ভাষায় কথা বলেন যা আমরা উচ্চারণ করতে পারি না। তারেক রহমান ইতিহাস ভিত্তিক সত্য কথা বলেছেন তাতে করে গায়ে জালা ধরেছে কেন? মনে রাখবেন ইট মারলে পাঠকেল খেতে হয়।

ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগ খাটি ফ্যাসিস্ট দল। তারা মুখে গণতন্ত্রের কথা বলে। আন্দোলন মোকাবেলা করতে না পেরে  অতীতের মতো গণতন্ত্রকে একদলীয় লেবাসে বন্দি করতে চাচ্ছে।

মির্জা ফখরুল আরো বলেন, আওয়ামী লীগ দেশের এমন কোনো জায়গা বাদ রাখেনি যেখানে তাদের দলীয় লোক নিয়োগ করেনি। আওয়ামী লীগ বন্দুকের জোরে জনগণের ইচ্ছাকে উপেক্ষা করে ক্ষমতায় রয়েছে।

এসময় তিনি সাবেক ছাত্র নেতৃবৃন্দের উদ্দেশ্যে বলেন, আসুন আওয়ামী লীগকে ক্ষমতা থেকে সরিয়ে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠায় সমগ্র বাংলাদেশের মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করে জাগিয়ে তুলি। খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে আগামী দিনে সরকার পতনের আন্দোলনে রাজপথে ঝাপিয়ে পড়ি।

ডাকসুর সাবেক জিএস ও বিএনপির শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক খায়রুল কবির খোকনের সঞ্চালনায় বক্তব্যে রাখেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক নাজিম উদ্দিন আলম, সহ-তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব, জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি (জাগপা) সাধারণ সম্পাদক খন্দকার লুৎফুর রহমান, ডেমোক্রেটিক লীগ সভাপতি সাইফুদ্দিন মনি, সাবেক ছাত্রনেতা মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল, গোলাম কাদির কামাল।

অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন  বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও ৯০’র ডাকসুর সাবেক ভিপি আমান উল্লাহ আমান।