জাতীয় ভোলা

ভোলায় বীরশ্রেষ্ঠ মোস্তফা কামাল পাঠাগারের যাত্রা শুরু

Pic--(4)--16--12--14

এম. শরীফ হোসাইন, হটনিউজ২৪বিডি.কম,ভোলা প্রতিনিধি: মহান স্বাধীনতা দিবসে ভোলার কৃতী সন্তান বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোহাম্মদ মোস্তফা কামালের স্মরণে এক পাঠাগারের যাত্রা শুরু হয়েছে। ১৬ ডিসেম্বর সকালে ওই পাঠাগার উদ্বোধন করা হয়।
সূত্রে যানা জায়, ১৯৭১ সালে পশ্চিম পাকিস্তান থেকে দীর্ঘ ৯ মাস মুক্তি সংগ্রামের পর ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ স্বাধীন হয়। ওই মুক্তিযুদ্ধে ৩০ লক্ষ শহীদ এবং ২ লক্ষ মা-বোনদের ইজ্জতের বিনিময়ে আমাদের এই স্বাধীনতা। স্বাধীনতা যুদ্ধে অসংখ্য নারী-পুরুষ শহীদ হয়। তাদের মধ্যে ৭ জনকে বীরশ্রেষ্ঠ উপাধিতে ভ‚ষিত করা হয়। তাদেরই একজন হলো বীরশ্রেষ্ঠ মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল। তিনি ভোলার দৌলতখান উপজেলার হাজিপুর ইউনিয়নের হাজিপুর গ্রামে জন্ম গ্রহন করেন। তার স্মৃতি রক্ষার্থে দৌলতখান ও ভোলায় ২টি কিন্ডার গার্টেন এবং ভোলা সদরের আলীনগর ইউনিয়নে বীরশ্রেষ্ঠ মোস্তফা কামাল মহাবিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় স্বাধীনতার ৪৪ বছরে এসে আরো একটি প্রতিষ্ঠান যুক্ত হলো তার নামের পাশে।
১৬ ডিসেম্বর ভোলা সদর উপজেলার পরানগঞ্জ বাজারে বীরশ্রেষ্ঠ মোস্তফা কামাল পাঠাগারের যাত্রা শুরু হয়েছে। পাঠাগারের যাত্রা শুরুর দিনে র‌্যালী ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। সকাল ১০টার দিকে একটি র‌্যালী বের হয়ে পরানগঞ্জ বাজার প্রদক্ষিণ করে। র‌্যালী শেষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় ভাষা শহীদ কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ জসিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন বীরশ্রেষ্ঠ মোহাম্মদ মোস্তফা কামালের ছোট ভাইয়ের বড় ছেলে মোঃ সেলিম। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বীরশ্রেষ্ঠ মোস্তফা কামাল মহাবিদ্যালয়ের ইসলাম শিক্ষা বিভাগের প্রভাষক মোঃ মিজানুর রহমান দিদার এবং ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের প্রভাষক মোঃ শরীফ হোসাইন। আলোচনা সভায় বক্তারা বীরশ্রেষ্ঠ মোহাম্মদ মোস্তফা কামালের জীবনী নিয়ে সংক্ষিপ্ত আলোচনা পেশ করেন। আলোচনা সভা শেষে বীরশ্রেষ্ঠ মোস্তফা কামাল পাঠাগারের সভাপতি ভাষা শহীদ কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ জসিম উদ্দিন ৫১ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি ঘোষণা করেন।