কৃষি দিনাজপুর

দিনাজপুরে আগাম আলু চাষে ব্যাপক সাফল্য

9

দিনাজপুর প্রতিনিধি,হটনিউজ২৪বিডি.কম: দিনাজপুরে আগাম আলু চাষ বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। অনুকুল আবহাওয়া ও অত্যাধুনিক পদ্ধতিতে চাষাবাদ করায় এবার এ অঞ্চলে আগাম আলু’র বাম্পার ফলন হয়েছে। আলুর দাম ভালো পাওয়ায় এ জাতের আলু চাষ করে ঘুরেছে অনেক কৃষকের ভাগ্যের চাকা।

দিনাজপুরের বিস্তীর্ণ ফসলের মাঠ জুড়ে এখন আগাম আলু’র সমারোহ। এর  পরিচর্যা ও উত্তোলনে  ব্যস্ত কৃষক। এ আলু চাষের ফলে কৃষকের পাশাপাশি শ্রমিকদেরও সৃষ্টি হয়েছে কর্মসংস্থানের।

বিভিন্ন উচ্চ ফলনশীল আগাম জাতের আলু আবাদ করেছেন  কৃষক। এ জাতের আলু চাষ করে তারা প্রতি বিঘা জমি থেকে লাভ করছেন ৪০ হাজার থেকে ৬০ হাজার টাকা।

দিনাজপুর দক্ষিণ কোতয়ালীর উলিপুর এলাকার কৃষক মফিজুল ইসলাম জানান, গত বছর আলু’র চাষ করে চরম লোকসান গুণতে হয়েছে তাকে। এবার আলু আবাদ করে কিছুটা হলেও সেই লোকসান পুষিয়ে নিতে পেরেছেন তিনি।

দিনাজপুর জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আব্দুল হান্নান জানিয়েছেন, জেলার ১৩ টি উপজেলায় এবার ৪০ হাজার এক’শ ১৩ হেক্টর জমিতে আলু চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এর মধ্যে আগাম জাতের আলু চাষ হয়েছে লক্ষ্যমাত্রার প্রায় অর্ধেক জমিতে। অর্থাৎ ২০ হাজার  হেক্টরেরও বেশী জমিতে আগাম জাতের আলু চাষ হয়েছে। এর মধ্যে সদর  ও বীরগঞ্জ উপজেলাতে হয়েছে সব চেয়ে বেশী। দাম ভালো পাওয়ায় কৃষক ক্ষেতেই বিক্রি করছেন আলু। এছাড়াও আগাম জাতের আলু বেচা-কেনাকে কেন্দ্র করে জেলায় গড়ে উঠেছে বেশ কয়েকটি আলুর মৌসুমি হাট।

বিভিন্ন স্থান থেকে পাইকাররা এসে এসব আলু কিনে নিয়ে যাচ্ছেন। জেলার চাহিদা মিটিয়ে  এসব আলু চলে যাচ্ছে রাজধানী ঢাকা, সিলেট, চট্টগ্রাম, বরিশালসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে। লাভ জনক ফসল হওয়ায়  আগাম আলু চাষে কৃষকদের সহযোগিতা ও পরামর্শ দিচ্ছে কৃষি বিভাগ।

এ জাতের আলু চাষে কৃষি বিভাগের সহযোগিতা ও পরামর্শ অব্যাহত থাকলে এবং আগাম আলু’র ন্যায্য মূল্য পেলে আগামীতে এ অঞ্চলে আগাম জাতের আলু চাষাবাদের পরিধি আরও বেড়ে যাবে, এমনটাই মন্তব্য করেছেন কৃষিবিদরা।