প্রধান খবর রাজশাহী শিক্ষাঙ্গন

নতুন বইয়ের অপেক্ষায় শিশু শিক্ষার্থীরা

4

রাজশাহী প্রতিনিধি,হটনিউজ২৪বিডি.কম: আর মাত্র কয়েকদিনের অপেক্ষা। এরপরে কচি শিক্ষার্থীরা নতুন বইয়ের মৌ গন্ধে মেতে উঠবে। ঝকঝকে পাতার ছবি আর ছড়ায়।

শিক্ষাবর্ষের শুরুতেই ‘বই উৎসবে’ মেতে উঠবে রাজশাহীর শিক্ষার্থীরা। নতুন বছরের প্রথম দিনেই এ উৎসবের দিন। ইতোমধ্যে মহানগরী ও জেলার প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে বই পৌঁছাতে শুরু করেছে।

জেলা শিক্ষা কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্র জানায়, জাতীয় শিক্ষা কার্যক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের (এনসিটিবি) নতুন কারিকুলামে ২০১৫ শিক্ষাবর্ষের নতুন বই মাধ্যমিক শিক্ষার্থীদের জন্য বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

রাজশাহী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সূত্র জানায়, চাহিদা মতো রাজশাহীর উপজেলা গুলোর প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের বইগুলো পৌঁছে দেয়া হয়েছে। এবার জেলায় প্রাথমিকে মোট পাঠ্যবই বিতরণ করা হবে ১৫ লাখ ৬৫ হাজার ১৭৬ কপি, এবতেদায়ি পর্যায়ে ১ লাখ ৭৬ হাজার ৬৭৫ কপি এবং এসএসসি ভোকেশনালে ১ লাখ ৩৪ হাজার ৪৯০ কপি বই বিতরণ করা হয়েছে। একই সঙ্গে মাধ্যমিক পর্যায়েও বই বিতরণ করা হবে।

এবার জেলা প্রাথমিকে মোট পাঠ্যবই বিতরণ করা হবে ১৫ লাখ ৬৫ হাজার ১৭৬ কপি বই বিতরণ করা হবে। এগুলোর মধ্যে রাজশাহী মহানগরীতে ২ লাখ ৬৫ হাজার ১৭৬ কপি, পবায় এক লাখ ৭৪ হাজার কপি, দুর্গাপুরে এক লাখ ৬১১ কপি, পুঠিয়ায়, এক লাখ ১৫ হাজার ৮০০টি, চারঘাটে এক লাখ ১৯ হাজার ২২৩ কপি, মোহরপুরে এক লাখ ২ হাজার ৪০৬ কপি, গোদাগাড়ীতে ২ লাখ ৪৮ হাজার ৬৯১ কপি, তানোরে এক লাখ ২৯ হাজার ৬৭৫ কপি এবং বাগমারায় ২ লাখ ২৪ হাজার ৭৬০ কপি বই বিতরণ করা হবে।

এদিকে রাজশাহী মহানগরীসহ জেলায় ৩০ লাখের বেশি বই বিতরণ করা হচ্ছে। এদের মধ্যে রাজশাহী মহানগরীতে চাহিদা আছে ৪ লাখ ৫৭ হাজার ২৫০ কপি।

সরকারের নির্দেশ অনুযায়ী এক জানুয়ারি বছরের প্রথম দিনে বিদ্যালয়ে বিদ্যালয়ে বইগুলো বিতরণ করা হবে।

রাজশাহী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আবুল কাশেম জানান, ইতোমধ্যেই বই বিতরণের সব ধরনের প্রক্রিয়া শেষ হয়েছে। আগামী কয়েক দিনের মধ্যে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসগুলো থেকে বিদ্যালয়ে বইগুলো পৌঁছে দেয়া হবে।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আবুল কাশেম আরো জানান, সব ধরনের নির্দেশনা উপজেলা শিক্ষা অফিসগুলোতে পাঠানো হয়েছে। পহেলা জানুয়ারি উৎসবমুখোর পরিবেশেই শিশুদের হাতে বই তুলে দেয়া হবে।

এদিকে মাধ্যমিক পর্যায়ে বইগুলো বিতরণের প্রস্তুতি শেষ হয়েছে বলে জানিয়েছে রাজশাহী জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম।

রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার পুরান তাহিরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আকতার নুর নিলা জানান, তার বিদ্যালয়ে প্রথম শ্রেণী থেকে পঞ্চম শ্রেণী পর্যন্ত ৩০০ জন শিক্ষার্থী লেখাপড়া করছে। নতুন বই পাবে বলে শিশুরা এখন থেকেই আনন্দে আছে।

তিনি আরো জানান, ইতোমধ্যেই উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস থেকে নির্দেশনা দিয়েছে। বছরের প্রথম দিন শিক্ষার্থীদের হাতে উৎসবমুখোর পরিবেশে বই তুলে দিতে হবে।

রাজশাহী জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম জানান, বই এখনো আসছে। যেসব বই এসেছে সেগুলো ইতোমধ্যেই উপজেলায় পাঠানো হয়েছে। সরকারের নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই বইগুলো শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দেয়া হবে।